March 3, 2024
শিরোনাম

অনাস্থায় গ্রামপঞ্চায়েত হাতছাড়া বিজেপির, বোর্ড গড়ল তৃণমূল

রায়গঞ্জ: তৃণমূল কংগ্রেসের একটিও আসন ছিল না উত্তর দিনাজপুর জেলার করণদিঘি ব্লকের করণদিঘি ১ নম্বর গ্রামপঞ্চায়েতে। পঞ্চায়েতের বিজেপির প্রধান মমতা সিংহ এবং উপপ্রধান দীপক রায় চরম দুর্নীতির সাথে যুক্ত হয়ে পড়ায় বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে নাম লেখান বিজেপির পঞ্চায়েত সদস্যরা। পাশাপাশি বাম-কংগ্রেস জোটের নির্বাচিত সদস্যরাও নাম লেখান ঘাসফুল শিবিরে। ফলে বিজেপি পরিচালিত করণদিঘি ১ নং গ্রামপঞ্চায়েতের ১৫ সদস্যের মধ্যে বর্তমানে ৯ জন তৃণমূল কংগ্রেসের। এদিন তাঁরা বিজেপির প্রধান ও উপপ্রধানের বিরুদ্ধে অনাস্থা ডাকলে ৯/৬ ভোটে বিজেপির প্রধান ও উপপ্রধানের অপসারণ ঘটে। একটিও নির্বাচিত সদস্য না থাকলেও বর্তমানে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষে ৯ জন সদস্য যোগদান করায় হাতছাড়া হল বিজেপি পরিচালিত করণদিঘি ১ নং গ্রামপঞ্চায়েত। আগামী দিনে পঞ্চায়েত আইন অনুসারে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান নির্বাচন করা হবে বলে জানিয়েছেন করণদিঘির তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক গৌতম পাল।

২০১৮ সালের পঞ্চায়েত নির্বাচনে করণদিঘি ব্লকের করণদিঘি ১ নং গ্রাম পঞ্চায়েতের মোট ১৫ টি আসনের মধ্যে ৯ টি আসন দখল করেছিল বিজেপি। বাকি ৬ টি আসন পেয়েছিল বামফ্রন্ট। তৃণমূল কংগ্রেসের ভাঁড়ার ছিল শূন্য। বিজেপির প্রধান নির্বাচিত হয়েছিলেন মমতা সিংহ এবং উপপ্রধান নির্বাচিত হয়েছিলেন দীপক রায়। বিজেপির বাকি সদস্য ও বাম-কংগ্রেস জোট সদস্যরা অভিযোগ করে বলেন বিজেপির প্রধান ও উপপ্রধান দীর্ঘদিন ধরে এই পঞ্চায়েতে চরম দুর্নীতি করে যাচ্ছিল। কোনওরকম উন্নয়নমূলক কাজই হচ্ছিল না গ্রামপঞ্চায়েতে। তাই মানুষের হয়ে কাজ করার লক্ষ্যে এবং গ্রামের সার্বিক উন্নয়নের লক্ষ্যে তাঁরা তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করে বিজেপির প্রধান ও উপপ্রধানের বিরুদ্ধে অনাস্থা ডাকে।

এদিন ৯/৬ ভোটে হেরে গিয়ে বিজেপির প্রধান ও উপপ্রধানের অপসারণ ঘটে। করণদিঘির নবনির্বাচিত তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক গৌতম পাল জানিয়েছেন, এবার তৃণমূল কংগ্রেসের বোর্ড হলে গ্রামে ধারাবাহিক উন্নয়নের কাজ চলবে। জনগণের স্বার্থে কাজ করবে তৃণমূল পরিচালিত করণদিঘির ১ নং গ্রামপঞ্চায়েত বোর্ড। খুব শীঘ্রই পঞ্চায়েতে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান নির্বাচিত করা হবে।

error: Content is protected !!