কুশমণ্ডিতে অটো ভাড়া নিয়ে বচসা, মারধর যাত্রী সহ এক ব্যবসায়ীকে




কুশমণ্ডি, ১৪ জুন: অটো ভাড়ার পাওনা এক টাকা না পেয়ে তুলকালাম কাণ্ড বাঁধল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার কুশমণ্ডিতে। অটোর এক যাত্রী এক টাকা ভাড়া কম দেওয়ায় তাঁকে বেধড়ক মারধর করল বেশ কয়েকজন অটো চালক। এদিকে এই ঘটনার প্রতিবাদ করতে যাওয়ায় মারধর করা হয় এক চাল ব্যবসায়ীকেও। ভেঙে দেওয়া হয় দোকানের একাংশ। ঘটনার প্রতিবাদে ক্ষুব্ধ জনতা মহীপাল বংশীহারী রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় কুশমণ্ডি থানার পুলিশ। পরে পুলিশি হস্তক্ষেপে পথ অবরোধ ওঠে। শুরু হয় যান চলাচল।




জানা গিয়েছে, এদিন সাজু সরকার নামে এক যাত্রী অটো করে কুশমণ্ডি থেকে যাচ্ছিল। গন্তব্যস্থলে নেমে ওই যাত্রী ৫ টাকা ভাড়া দেয় অটো চালককে। অভিযোগ, অটো চালক দাবি করে কুশমণ্ডি থেকে মহীপাল পর্যন্ত অটো ভাড়া ৬ টাকা। এক টাকা কম দেওয়ায় বচসা শুরু হয় যাত্রী ও অটো চালকদের মধ্যে। এমনকি ঘটনায় ওই যাত্রীকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ ওঠে।

এদিকে এক টাকার জন্য এক যাত্রীকে মারধর করায় স্থানীয় চাল ব্যবসায়ী রুস্তম আলী ঘটনার প্রতিবাদ করে। ফলে ঘটনার প্রতিবাদ করায় বেশ কয়েকজন অটো চালক হামলা চালায় ওই চাল ব্যবসায়ীর উপর। তাঁর দোকান ভাঙচুর করা হয়। সেইসঙ্গে ব্যপক মারধরও করা হয় রুস্তম আলীকে। এরপরই মহীপাল এলাকায় রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে ক্ষুব্ধ জনতা। আটকে পড়ে বিভিন্ন রুটের বাস সহ অন্যান্য গাড়ি।

এদিকে পথ অবরোধের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় কুশমণ্ডি থানার পুলিশ। পুলিশি হস্তক্ষেপে প্রায় ঘণ্টা খানেক পর পথ অবরধ উঠে যায়। স্বাভাবিক হয় যান চলাচল। পাশাপাশি ওই আক্রান্ত অটো যাত্রী মৌখিকভাবে থানায় অভিযোগ করেছে বলে জানা গিয়েছে। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

এবিষয়ে আক্রান্ত রুস্তম আলী জানান, ভাড়া নিয়ে বিবাদ দেখে তিনি প্রতিবাদ করেন। তাই তাঁর দোকানের সব কিছু ভেঙে দেওয়া হয়। এমনকি মারধর করা হয় তাঁকে।

যদিও এই বিষয়ে অটো চালক বা সংগঠনের কারও কোনও মন্তব্য পাওয়া যায়নি।





error: Content is protected !!