মাধ্যমিকে ৯৬ শতাংশের বেশি নম্বর, পড়াশোনায় বাধা আর্থিক অনটন




জলপাইগুড়ি, ৭ জুন: বুধবার প্রকাশিত হয়েছে এবছরের মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফল। সার্বিকভাবে জলপাইগুড়ির ফলাফল তেমন ভালো না হলেও মেধা তালিকায় স্থান করে নিয়েছে জলপাইগুড়ির তিনজন পরীক্ষার্থী। এবছর মাধ্যমিকে জলপাইগুড়ি জেলা স্কুলের দু’জন ছাত্র, নীলাব্জ আর মৃন্ময় রাজ্যে তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে। অন্যদিকে মেধা তালিকায় স্থান না পেলেও নীলাব্জ ও মৃন্ময়’এর এক সহপাঠী দেবজিৎ রায়’এর কৃতিত্বও কিন্তু কোনও অংশেই কম নয়।




 

মাত্র একমাস বয়সে দেবজিৎ তাঁর বাবাকে হারিয়েছে। তারপর তাঁর মা শিখা রায় ছোট্ট দেবজিৎকে নিয়ে চলে আসেন জলপাইগুড়ির অশোকনগরে দাদুর বাড়িতে। দেবজিৎ’এর দাদু যোগেশচন্দ্র সরকার শিক্ষকতা করতেন। তবে দাদুর মৃত্যুর পর দিদিমা জ্যোৎস্না দেবী পেনশনের সামান্য টাকায় মেয়ে ও নাতিকে নিয়ে অনেক কষ্টে সংসার চালিয়েছেন। আজ দেবজিৎ’এর মা ও দিদিমার স্বপ্ন সার্থক।

 

ছোট থেকেই দারুন আর্থিক প্রতিকূলতার মধ্যে পড়াশুনা চালিয়ে আসা দেবজিৎ মাধ্যমিকে ৯৬ শতাংশের বেশি নম্বর পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে। তাঁর প্রাপ্ত নম্বর ৬৭৬। দেবজিৎ বাংলায় পেয়েছে ৯৪, ইংরেজীতে ৯৪, ভৌতবিজ্ঞানে ১০০, অঙ্কে ১০০, জীবনবিজ্ঞানে ৯৯, ইতিহাসে ৯৫ এবং ভূগোলে পেয়েছে ৯৬। দেবজিৎ’এর এই সাফল্যে তাঁর মা ও দিদিমা একদিকে যেমন খুব খুশি, অন্যদিকে এই সাফল্য দুশ্চিন্তাও বাড়িয়ে তুলেছে তাঁদের। আর্থিক অনটন সংসারে নিত্য সঙ্গী, তাই দেবজিৎ’এর পড়াশোনার ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তিত দিদিমা ও মা দু’জনেই।

 

দেবজিৎ’এর মা শিখা দেবী জানিয়েছেন, স্কুলের শিক্ষকরা, বিশেষ করে প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক বিরাজ মোহন ঘোষ ছেলেকে ভীষণভাবে সাহায্য করেছেন। মাধ্যমিকে প্রতিটা বিষয়ে একজন করে গৃহশিক্ষক থাকলেও কেউ তার জন্য পারিশ্রমিক নেননি। কিন্তু এরপর! ছেলের পড়াশোনার বিপুল খরচ তিনি জোগাড় করবেন কী করে? তাই কৃতী ছেলের স্বপ্ন পূরণের জন্য তিনি সমাজের স্বহৃদয় মানুষের কাছে সাহায্যের আবেদন রেখেছেন।

 

অন্যদিকে কৃতি ছাত্র দেবজিৎ জানিয়েছে, আরও ভালো নম্বরের আশা সে করেছিল। তাই কিছুটা হতাশ, তবে এই ফলাফল মেনে নিতে রাজি সে। এরপর সে অঙ্ক নিয়ে পড়াশোনা করতে চায় এবং ভবিষ্যতে অধ্যাপনা করতে চায়। তবে সংসারের আর্থিক অনটনের কথা তাঁর অজানা নয়। তাই সে জানিয়েছে, পড়াশোনার জন্য সরকারি বা বেসরকারি সাহায্য পেলে খুবই ভালো হয়।

 





You May Also Like

error: Content is protected !!