৩৬ নিষিদ্ধ কেএলও জঙ্গিকে মুলস্রোতে ফেরাল রাজ্য, হোমগার্ডে নিয়োগ




শিলিগুড়ি, ১২জুলাই: ছত্রিশ জন নিষিদ্ধ কেএলও জঙ্গিকে মুলস্রোতে ফেরাল রাজ্য। তাঁদের রাজ্য পুলিশের হোমগার্ড পদে নিয়োগ করা হল। বৃহস্পতিবার শিলিগুড়িতে মুখ্যমন্ত্রীর শাখা সচিবালয় উত্তরকন্যায় ওই ছত্রিশজনকে নিজে নিয়োগপত্র তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দে্যাপাধ্যায়। সমাজের মূলস্রোতে ফিরতে পেরে খুশি এক সময় রাষ্ট্রশক্তির বিরুদ্ধে কাজ করা যুবকেরা এখন রাজ্যের পক্ষেই কাজ করবেন।




 

 

মুখ্যমন্ত্রী নিয়োগপত্র তুলে দিয়ে জানান, পথভ্রষ্টদের রাস্তায় ফেরাতে রাজ্য সব সময় আগ্রহী ও সহৃদয়। মানুষ ভুল থেকেই শেখে। তিনি বলেন, “ছত্রিশ জনকে পুলিশে চাকরি দেওয়া হলে । পাশাপাশি আরও অনেকে যোগাযোগ করেছেন, কিংবা যাঁরা করতে চান, তাঁদেরও সসম্মানে জীবনযাপনের সুযোগ দেওয়া হবে। সবাইকে আহ্বান জানানো হয়েছে।”

 

 

যে ছত্রিশজনকে চাকরিতে নিয়োগ করা হয়েছে, তার মধ্যে রয়েছেন এক সময়ের কুখ্যাত জঙ্গি মিল্টন ওরফে মিহির দাসও। পুলিশ বিভাগে চাকরি দিয়ে দু’টি বার্তা দেওয়া গেল বলে মনে করা হচ্ছে। একদিকে মূলস্রোতে ফেরানো, সেইসঙ্গে পুলিশে চাকরি দিয়ে জঙ্গি ও বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলনের বিরুদ্ধেই তাঁদের কাজে লাগানো যাবে। এতে যাঁরা এখনও মূলস্রোতে ফেরেননি, তাঁদের কাছে বার্তাটাও পরিস্কার থাকবে।

 

 

এদিন যাঁরা চাকরিতে যোগ দিলেন, তাঁদের মধ্যে কুমারগ্রাম, জলপাইগুড়ি, ধূপগুড়ি, ময়নাগুড়ি, শামুকতলা এলাকার বাসিন্দা। আরও কিছু রয়েছে, তাঁদেরও সুযোগ মতো অন্যান্য পদে নিয়োগ করা হবে বলে এদিন মুখ্যমন্ত্রী জানান। এদিন নিয়োগপত্র তুলে দেওয়ার সময় উপস্থিত ছিলেন রাজ্য পুলিশের ডিজি বীরেন্দ্র, রাজ্য পুলিশের পরামর্শদাতা সুরজিৎ কর পুরকায়স্থ, শ্রমমন্ত্রী মলয় ঘটক, পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব, উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ, এসজেডিএ–এর চেয়ারম্যান সৌরভ চক্রবর্তী।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!