আয়োজন করা হয় মাশরুম চাষের প্রশিক্ষণ শিবির




দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা, ১১ অক্টোবর:-মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা করেছিলেন বাংলায় যত অঙ্গনওয়াড়ি স্কুল রয়েছে প্রতিটি স্কুলে খাদ্যের তালিকায় মাশরুম রাখতে হবে। মুখ্যমন্ত্রী কথা কে প্রাধান্য দেবার উদ্দেশ্যে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার সাগরদিপে মাশরুম চাষের প্রশিক্ষণ শিবির আয়োজন করা হয়।




চন্ডীপুর কাজী নজরুল অ্যাসোসিয়েশন নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এই প্রশিক্ষণ দেন। সংগঠনের নবতম প্রয়াস মাশরুম চাষের মাধ্যমে গ্রামের প্রত্যন্ত গরিব মানুষগুলোকে অর্থনৈতিক স্বনির্ভর করা। অঙ্গনারী স্কুলের শিশুদের মাশরুম খাদ্য হিসেবে গ্রহণ করার পর মাশরুমের উপকারিতা সম্বন্ধে অঙ্গনারী স্কুলের শিক্ষিকা দের সচেতন করা।। এই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা প্রশিক্ষণসহ মাশরুম বীজ সরবরাহ এবং অঙ্গনারী স্কুলের রান্নার পরে উদ্বৃত্ত মাশরুম কে নিজেরাই কিনে নেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন।

এখন মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণায় এলাকার মানুষ এবং অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীরা মাশরুম চাষ করে ও স্বেচ্ছা সেবী সংগঠনের হাত ধরে চাষিরা আশার আলো দেখছেন। উক্ত শিবিরে উপস্থিত ছিলেন ওই অঞ্চলের প্রধান শোভা রানী দিণ্ডা এবং উপপ্রধান হরিপদ মন্ডল। শোভা দেবী মাশরুম চাষের জন্য এলাকার চাষীদের উৎসাহ দেন। হরি বাবু মাশরুম এর গুনাগুন সম্পর্কে আলোকপাত করেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!