কুকুরে কামড়ালে যে রোগ, সেই রোগ হয়েছে দিলীপ ঘোষের’, অনুব্রত মণ্ডল




বীরভূম,৮ নভেম্বর:গোষ্ঠ উৎসবের দিন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বর্ধমানে শ্রী শ্রী গোপাষ্টমী ও প্রদীপ প্রজ্জলন মহানুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছিলেন। সেই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে তিনি বক্তব্য রাখার সময় দেশি গরুর উপর বেশি ভরসা রাখতে বলেন। তিনি বলেন, “যে গরু হাম্বা হাম্বা করে না, সে গরু নয়।অন্যান্য দেশ থেকে গরু নিয়ে এসেছি আমরা। কিন্তু সেটা গরুই নয়। এক ধরনের জানোয়ার। সেজন্য এ গো-মাতা নয়। এ হল আন্টি। আন্টির পুজো করলে দেশের কল্যাণ হবে না।”




এখানেই শেষ করেন নি বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি গরুর গুরুত্ব বোঝাতে গিয়ে এও বলেন গরুর কুঁজে রোদ পড়লে সোনা হয়। তিনি বলেন, “বিদেশি গরুর পিঠে কুঁজ থাকে না কিন্তু দেশি গরুর পিঠে কুঁজ থাকে। আর ওই কুঁজেই থাকে স্বর্ণনালি। রোদ পড়লে ওখানে সোনা তৈরি হয়। তাই তো দেশি গরুর দুধ সোনালি হয়।”

বিজেপির রাজ্য সভাপতির এহেন মন্তব্যের পর বিতর্কের ঝড় ওঠে দেশ জুড়ে। সোশ্যাল মিডিয়ায় একের পর এক ব্যঙ্গ শুরু হয় দিলীপ ঘোষকে নিয়ে। যদিও বিজেপির অন্যান্য নেতারা দিলীপ ঘোষের পাশে দাঁড়ায় নানান যুক্তি দেখিয়ে।

আর আজ বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল দিলীপ ঘোষের এহেন বক্তব্য নিয়ে দিলীপ ঘোষকে কটাক্ষ করেন, ‘উনার জলাতঙ্ক রোগ হয়েছে বলে।’ অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “পাগলে কিনা বলে। জলাতঙ্ক রোগ জানেন? কুকুরে কামড়ালে ১০ বছর পর হয়, ওর সেটাই হয়েছে। কেন যে ডাক্তার দেখাচ্ছে না। অবশ্য জলাতঙ্ক রোগ হলে অনেক কষ্ট হয়, আলফাল বকে। এখনো পর্যন্ত জলাতঙ্ক রোগের কোন ওষুধ বের হয় নাই। জলাতঙ্ক রোগের কোন ওষুধ বের করতে পারে নাই। কুকুরে কামড়ালে যে রোগ হয় সেই রোগ হয়েছে দিলীপ ঘোষের। সেজন্যই মাঝে মধ্যে বীরভূমে এসে মা তারাকে বলে রোগ থেকে বাঁচাও।”

প্রসঙ্গত আজ তৃণমূলের একটি যোগ দান কর্মসূচী ছিল বীরভুমের বোলপুর তৃণমূল কার্যালয়ে। সেই অনুষ্ঠানে কয়েকশো বিজেপি কর্মী তৃণমূলে যোগদান করে। আর এই যোগদান মঞ্চ থেকেই অনুব্রত মণ্ডল দিলীপ ঘোষকে গরুর দুধে সোনা প্রসঙ্গে কটাক্ষ করেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!