১২ চাকার লরির সাথে বাইকের ধাক্কা,মৃত ও আহত 3 জনই একই পরিবারের




কলকাতা, ১৭ জুলাই:সোমবার রাতে 10.45 নাগাদ মেটিয়াব্রুজ থানার কাছে মেটিয়াব্রুজ থেকে খিদিরপুর গামী 12 চাকার একটি লরি একটি বাইকে ধাক্কা মারে। ওই বাইকের 3 আরোহীর মধ্যে 2 জন ঘটনাস্থলেই ঐ লরির চাকায় পিষ্ট হন। বাইকের আরোহী 3 জন স্বামী, স্ত্রী ও কন্যা বলে জানা যায়। 3 জন কে sskm হাসপাতালে নিয়ে গেলে 2 জন কে মৃত ঘোষণা করে, 1 জন আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন। মৃত ও আহত 3 জনই একই পরিবারের, বাইক চালক afroj ali (40) ও তার মেয়ে monah ali (3) মৃত এবং গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন স্ত্রী nigah sultana।




পুলিশ সূত্রে জানা গেছে এরা সকলেই পার্ক সার্কাসের তিলজলার বাসিন্দা। এই দুর্ঘটনার পর স্থানীয় উত্তেজিত বাসিন্দাদের ক্ষোভ আছড়ে পড়ে ঐ রাস্তার দুইধারে বেআইনি ভাবে পার্কিং করা মেটিয়াব্রুজ – হাওড়া রুটের মিনিবাস ও ঘাতক লরিটির উপর। তারা দেহ আটকে রেখে যথেচ্ছ ভাঙচুর চালান মিনিবাস ও লরিটিতে। ঘটনাস্থলে আসে মেটিয়াব্রুজ থানার পুলিশ, কিন্তু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের বাইরে চলে যাওয়ায় খবর যায় লালবাজারে।

প্রায় ঘন্টা খানেক বাদে ঘটনাস্থলে আসে বেশ কয়েকজন পুলিশের উচ্চ আধিকারিক ও গার্ডেনরিচ, একবালপুর, ওয়াটগঞ্জ থানার পুলিশ সহ লালবাজারের বিশাল পুলিশবাহিনী ও RAF, উত্তেজিত জনতাকে নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠি চার্জ করে পুলিশ। এরপর দেহগুলি উদ্ধার করে sskm হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। দুর্ঘটনার পর ঘাতক লরিটিকে পুলিশ আটক করলেও পলাতক লরিটির চালক ও খালাসি। পুলিশ সূত্রে খবর ঘটনাস্থলে মোট ভাঙচুর হয় আটটি মিনিবাস ও 2 টি লরি। তদন্তে মেটিয়াব্রুজ থানার পুলিশ।




You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!