বড়দিনের আগে বড় খবর এলো ভ্যান চালকের জীবনে




জলপাইগুড়ি, ২২ ডিসেম্বর বড়দিনের আগে বড় খবর এলো ভ্যান চালকের জীবনে৷ ৩০ টাকার টিকিট কেটে রাতারাতি কোটি পতি। খবর শুনে হতবাক ভ্যান চালক সুবোধ রায় বৈশ্য। টিকিট নিয়ে কোতোয়ালি থানায় হাজির পরিবারের পরিজনদের নিয়ে। সুবোধের বাড়ি ময়নাগুড়ি টেকাটুলিতে। পেটের টানে জলপাইগুড়ি শহরে প্রতিদিনই আসেন তিনি। শহরে এসে অন্যের ভ্যান ভাড়া করে দিনমজুরের কাজ করতেন তিনি। গরিব পরিবার। বাড়িতে স্ত্রী ও দুই সন্তান রয়েছে।




বৃহস্পতিবার শহরে এসে রেসকোর্স পাড়ার এক লটারি দোকান থেকে ৬০ টাকা দিয়ে নাগাল্যান্ডে রাজ্যের পাঁচ সিরিজের দু’টি নম্বর নিয়েছিলেন সুবোধ।প্র‍থমে তিনি ভাবতেই পারেননি লটারি টিকিট পুরস্কার পাবেন। প্রতিদিনের মত লটারি কেটে রাতে ওই টিকিট মেলাতে আসেন। লটারি মেলাতে গিয়ে তিনি দেখেন ৭৫ডি ৫৪৭১৭ নম্বরে এক কোটি টাকা পুরস্কার হয়েছে। সুবোধের কথায় , সেই সময় তিনি নিজেও বিশ্বাস করতে পারেননি। বার বার নম্বরটা মিলিয়ে হতবাক হয়ে যান তিনি।

সঙ্গে সঙ্গে পুরস্কারের টিকিট পকেটে নিয়ে বাড়ি চলে আসেন সুবোধ। এরপর ভালোভাবে আবার টিকিট মিলান। এরপর এদিন দুপুরে থানায় এসে ওই টিকিটের জেরক্স জমা করলেন সুবোধ রায় বৈশ্য। তিনি বলেন, আমি অবাক হয়েছিলাম। প্রথম এত বড় পুরস্কার পেলাম ভাবতেই পারছি না। এই কারণে থানায় এসেছি। লটারি বিক্রেতা সমীর লামা বলেন, গরিব পরিবারের একজন পুরস্কার পেয়েছে। আমি খুব খুশি।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!