ভারত নাট্যম, রবীন্দ্র নৃত্য, লোক নৃত্য তিনেই পারদর্শী সে




জলপাইগুড়ি, ১০ জুলাই: আমরা সকলেই ছোটো থেকে বড়ো হয়েছি। ছোটো থেকেই জীবনের জন্য অনেক কিছু ভেবে বড় হয়েছি, যেমন কখনও ভেবেছি বড় হয়ে ডাক্তার হব, ইঞ্জিনিয়ার হব, শিক্ষক হব কিংবা বড় খেলোয়াড় হব। কিন্তু পাঁচ বছরের শ্রীমন্তী কুন্ডু আমাদের সবাইকে অবাক করে দিয়েছে। জলপাইগুড়ির তেলি পাড়াতে বাড়ি ছোট্ট শ্রীমন্তীর। মাত্র দু বছর বয়সেই নাচে হাতেখড়ি হয় শ্রীমন্তীর। ভারত নাট্যম, রবীন্দ্র নৃত্য, লোক নৃত্য সবেতেই পারদর্শী সে।




এবছর শ্রীমন্তী রাজ্যস্তরের নৃত্য মেধা অন্নেষণ প্রতিযোগিতায় ৬৯.৫০% নম্বর পেয়ে সমগ্র উত্তরবঙ্গে রবীন্দ্র নৃত্যে দ্বিতীয় এবং জলপাইগুড়ি জেলা থেকে প্রথম হয়ে সিলভার পদক অর্জন করেছে। আগামী ৪ আগস্ট শিলিগুড়ির দীনবন্ধু মঞ্চে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে পদক প্রদান করা হবে। এছাড়া গত ৭ মে কলকাতার জ্ঞান মঞ্চে ছন্দনীড় আয়োজিত আনন্দধারা নৃত্য প্রতিযোগিতায় রবীন্দ্র সন্মান ২০১৮ পেয়েছে শ্রীমন্তী এবং অলোকানন্দা রায় ও আলোকপর্ণা গুহের হাত থেকে সম্মাননা গ্রহণ করে সে।

১১ মে নন্দন উৎসব ২০১৮ তে রবীন্দ্র নৃত্যে জুরি আওয়ার্ড পায় শ্রীমন্তী। শ্রীমন্তীর নাচের প্রতি আগ্রহ দেখে তার বাবা মা খুবই খুশি।শ্রীমন্তীকে নাচের প্রতি উৎসাহ দেয় তার মা রিম্পা দাস কুন্ডু। শ্রীমন্তী নাচের ভাল ফলাফলের জন্য বাইরেও নাচ করতে গিয়েছে যেমন জল্পেশ, শিলিগুড়ি এমনকি কলকাতায় গিয়েছে দুবার এবং জলপাইগুড়ির যে কোনো জায়গায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হলে সেখানেই শ্রীমন্তীর ডাক পড়ে।

ছোট্ট শ্রীমন্তীর ইতিমধ্যেই জলপাইগুড়িতে বেশ নামডাক হয়ে গেছে। নাচের পাশাপাশি শ্রীমন্তী মডেলিংও করে থাকে। ইতিমধ্যে সে জলপাইগুড়িতে একটি মডেলিং প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েছে। শ্রীমন্তীর বাবা মা চান তাদের মেয়ে বড় হয়ে নৃত্যশিল্পী হোক।




You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!