দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা কংগ্রেস সভাপতি নীলাঞ্জন রায়,বিজেপিতে যোগ




বালুরঘাট, ২১জুলাই: বাংলা বিকাশ কংগ্রেস সহ দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা কংগ্রেস সভাপতি নীলাঞ্জন রায় আনুষ্ঠানিক ভাবে বিজেপিতে যোগ দান। দুই নেতার সঙ্গে আরও হাজার দশেক তৃণমূল এবং কংগ্রেস ও সিপিএম কর্মীরা যোগদান করেন বিজেপিতে। তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়। পাশাপাশি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মকুল রায়।




কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোন দান নিয়ে কিছু দিন ধরে টানাপোড়ন শুরু হয়েছিল রাজনৈতিক মহলে। কিন্তু এদিন হাজার তিনেক কর্মী সমর্থকদের নিয়ে কংগ্রেস ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেন দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি নীলাঞ্জন রায়। এদিনে অনুষ্ঠানে বাংলা বিকাশ কংগ্রেসের আবদুল করিম চৌধুরি ইসলামপুরের প্রাক্তন বিধায়ক এনডিএর সমর্থনের কথা বলে। দুই জন হেবিওয়েট নেতার পাশাপাশি তপনের বহিষ্কৃত সিপিএম নেতা নিরোদ দাস সহ ১০ হাজার কর্মী সমর্থক বিজেপিতে যোগদান করেছে বলে বিজেপি নেতৃত্ব দাবি করেছেন।

এবিষয়ে আবদুল করিম চৌধুরি বলেন, আমি চিঠির মাধ্যমে বিজেপির এনডিএ শরিক-এ যোগদানের কথা বলি। সেই মতো সাড়া দিয়ে কৈলাস বিজয়বর্গী ও মকুল রায়ের হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান। সমাজের উন্নতি করবার জন্য তাঁর এই বিজেপিতে যোগদান।

অন্য দিকে নীলাঞ্জন রায় বলেন, অধীর রঞ্জন চৌধুরি আমার নেতা আছে থাকবে। যে ভাবে অধীর রঞ্জন চৌধুরি তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়াই করেছে তাকে মর্যদা হাই কম্যান্ড দেয়নি। একদিকে লড়াই করছে একদিকে কংগ্রেসের বিধায়ক মনোজ চক্রবর্তীরা তৃণমূলের কাছে মার খাচ্ছে। কংগ্রেসের এমএলএ-এ ফিরোজা বেগম কে গলায় ব্লেট মারা হচ্ছে। কংগ্রেসের বিধায়ক আবু হাসান খান চৌধুরি তার গাড়িতে তৃণমূলের জঙ্গিরা বোমা নিক্ষেপ করেছে। কংগ্রেসের এমএলএ তাদের উপর তৃণমূলের হার্মাদরা আক্রমণ করছে। আর সেই সময় কংগ্রেসের হাই কম্যান্ড দিল্লীতে দালালি করছে আর ইফতার পার্টিতে তৃণমূল কংগ্রেস কে নিয়ে বলছে আগামী দিনে জোট করতে হবে। আমরা হাই কম্যান্ড কে চ্যালেঞ্জ করছি হ্যাঁ বালুরঘাট থেকে সর্ব ভারতীয় কংগ্রেস এর নেতা রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষণা করে বিজেপিতে যোগদান করছি।




You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!