মুকুল রায়কে গদ্দার বলে কটাক্ষ তৃণমুল মহাসচিবের

ওয়েব ডেস্কঃ সাংবাদিক সম্মেলন করে তৃণমূলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার কথা ঘোষণা করে দিয়েছেন মুকুল রায়। রাজ্য রাজনীতিতে এখন জোর জল্পনা, খুব তাড়াতাড়ি বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন একদা শাসকদলের রাজ্য সম্পাদক ও মুখ্যমন্ত্রীর প্রিয় নেতা মুকুল রায়। এই প্রেক্ষাপটে এবার দলের সাসপেন্ডেড সাংসদের বিরুদ্ধে সুর আরও চড়াল তৃণমূল কংগ্রেস। মুকুল রায়কে সরাসরি ভোটের ময়দানে নামার চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন তৃণমূলের মহাসচিব , পার্থ চট্টোপাধ্যায় । তাঁর অভিযোগ, গদ্দারের মতো আচরণ করছেন মুকুল। বস্তুত, ঘরে বসে না থেকে, মুকুল রায়কে সরাসরি তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে ভোটে লড়ার চ্যালেঞ্জও জানিয়েছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

আর মাত্র দু’বছর পরই লোকসভা নির্বাচন। স্বাভাবিকভাবেই মুকুল রায়কে কৌতুহল বাড়ছে রাজনৈতিক মহলে। শোনা যাচ্ছে, মুকুলকে দলে নিতে আগ্রহী বিজেপির একাধিক শীর্ষ। তিনিও যে গেরুয়া শিবিরেই যোগ দিতে চান, তা বুঝিয়ে দিচ্ছেন মুকুল রায়। বিজেপির রাজ্য রাজ্য দপ্তরে নাকি বিজয়া দশমীর মিষ্টিও পাঠিয়েছেন তিনি। এই প্রেক্ষাপটে বুধবার সাংবাদিক সম্মেলনে একদা দলের সতীর্থকে কার্যত তুলোধোনা করলেন তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। মুকুলের নাম না করে তিনি বলেন, যাঁরা গদ্দার, তাঁরাই এমন আচরণ করেন। তাঁর দাবি, দলে থেকে দলকে দুর্বল করার চেষ্টার যে অভিযোগ উঠেছিল, তা নিজেই প্রমাণ করে দিয়েছেন মুকুল।

শোনা যাচ্ছে, নিজেকে দলের থেকে বিচ্ছিন্ন করেছেন ঠিকই। তবে তৃণমূল কংগ্রেসের অনেক তাবড় তাবড় নেতার সঙ্গে গোপনে যোগাযোগ করেছেন মুকুল রায়। পরিস্থিতি বুঝে নিতে পুজোর পর মুকুল রায় জেলা সফরেও যেতে পারেন বলে খবর। আর তাতেই অস্বস্তি বেড়েছে তৃণমূলের।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *