মোহনবাগানের কমিটির বৈধতা নিয়ে ফের শুনানি বুধবার




কলকাতা, ১০জুলাই: মোহনবাগান ক্লাবের এগজিকিউটিভ কমিটির বৈধতা ও নির্বাচনী বিতর্ক সোমবার কলকাতা হাইকোর্টে জোরদার চেহারা নিল। এক পক্ষের দাবি, মেয়াদ ফুরিয়ে যাওয়ায় কমিটির নির্বাচন আদালত নির্বাচিত পর্যবেক্ষকের উপস্থিতিতে হোক। অন্যপক্ষ জানাল, আইনমাফিক কমিটির মেয়াদ বহাল আছে। জুলাই মাসে ভোটার তালিকা তৈরি করে সেপ্টেম্বর মাসে ভোট হতে পারে। দ্বিতীয়ত, যে কমিটি রয়েছে, তা সম্পূর্ণ আইনানুগ।




আবেদনকারী মদনমোহন দত্ত’র তরফে আইনজীবী প্রতাপ চট্টোপাধ্যায় এদিন দাবি করেন, স্বপনসাধন বসু ও অন্যরা প্রায় এক বছর আগে পদত্যাগ করেছিলেন। কোনও ক্লাবের ক্ষেত্রে কমিটির সদস্য পদত্যাগ করলে, তা স্বাভাবিকভাবেই কার্যকর হয়। সেই পদত্যাগপত্র গ্রহণ বা বর্জনের সুযোগ নেই। কিন্তু, পদত্যাগী সদস্যরা প্রায় এক বছর পরে নিজেদের পদত্যাগপত্র প্রত্যাহার করে কমিটিতে ফিরতে চাইছেন।

যা করা যায় না। তিনি এও দাবি করেন, বর্তমান কমিটি আইনমাফিকই কাজ করছে। কিন্তু, পদত্যাগী ওই সদস্যরা ঘুরপথে অধিকার ফিরে পেতে চাইছেন। তাঁর মতে, বর্তমান কমিটির পরিচালন ব্যবস্থায় যদি বেআইনি কিছু না থাকে, তাহলে কোনও ক্লাবের বিষয়ে আদালত হস্তক্ষেপ করতে পারে না। বর্ষীয়ান ওই আইনজীবী বলেন, পদত্যাগ করা হলে নয়া নির্বাচন মারফত কমিটিতে বা কোনও পদে ফেরা যায়। ক্লাবে কোষাধ্যক্ষ পদত্যাগ করার পর কমিটির অন্য এক সদস্যকে সেখানে আনা হয়। এই প্রসঙ্গে ওঠা বিতর্ক প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যদি ওই পদ ফাঁকা রাখা হত, তাহলে বলা হত, কমিটি যথাযথভাবে ক্লাব চালাচ্ছে না।

কিন্তু, যখন আইন মেনে কাজ চালানো হচ্ছে, তখন বলা হচ্ছে, বেআইনি কাজ হচ্ছে। উদাহরণ হিসেবে তিনি বলেন, ধরা যাক কোনও কোম্পানিতে ২০ জন ডিরেক্টর আছেন। বোর্ড অব ডিরেক্টরর্স এর বৈঠকে ৭ জন থাকলেই কোরাম হবে বলে বিধি রয়েছে। এই অবস্থায় যদি ১২ জন ডিরেক্টর পদত্যাগ করেন, তাহলে কোরাম হলে বোর্ড এর নেওয়া যে কোনও সিদ্ধান্তই আইনানুগ বলে বিবেচিত হবে।

এক্ষেত্রেও কমিটি সেভাবেই ক্লাব সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নিয়ে এসেছে। এমন সওয়ালের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি শেখর বি শরাফের প্রশ্ন ছিল, কোষাধ্যক্ষ পদের জন্য আলাদা নির্বাচন করার বিধি রয়েছে। এই প্রসঙ্গে ওই আইনজীবী জানান, পদটি শূন্য হলে কমিটি তা পূরণ করতে পারে, যতদিন না পরবর্তী নির্বাচন হচ্ছে। তিনি মনে করেন, মামলায় যেসব প্রশ্ন তোলা হয়েছে, তার সবই ক্লাবের বিধি ব্যবস্থার পরিপন্থী।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!