বালুরঘাটে মোবাইল টাওয়ারে উঠে পড়ল কিশোর




বালুরঘাট, ৫ জুন: ডাক্তারের কাছে যাওয়ার কথা শুনেই মানসিক অবসাদে ভোগা এক কিশোর সবার নজর এড়িয়ে উঠে পড়ল মোবাইল টাওয়ারে। পরিবার থেকে স্থানীয়রা টাওয়ার থেকে নামার জন্য অনুরোধ করলেও কর্ণপাত করেনি সতেরো বছর বয়সি সঞ্জয় সিং(পরিবর্তিত নাম) নামে ওই যুবক। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় বালুরঘাট থানা ও পতিরাম ফাঁড়ির পুলিশ। যায় দমকলের একটি ইঞ্জিন ও বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তর। বালুরঘাট থানার খাঁপুর কৈগ্রাম এলাকার ঘটনা। ওই যুবককে টাওয়ার থেকে নামানোর চেষ্টা করছে পুলিশ, দমকল ও বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের কর্মীরা।




জানা গিয়েছে, ওই যুবক স্থানীয় খাঁপুর হাই স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্র। পড়াশুনা ছেড়ে দিয়ে বছর দুয়েক আগে ভিন রাজ্যে কাজ করতে যায় সে। বছর খানেক আগে বাড়ি ফিরে আসে সে। বাড়ি আসার পর থেকেই কথা কম বলতো পরিবার ও অন্যান্য লোকের সঙ্গে। চুপ চাপ থাকতো সব সময়। মাস দুয়েক আগে থেকে তার মাথার ব্যামো বেশি লক্ষ করে পরিবারের লোকজন। চলছিল তার নার্ভের চিকিৎসা।

মঙ্গলবার সকালে ডাক্তার দেখানোর কথা ছিল। সেই মত ওই কিশোরের মা স্নান করে রেডি হয়। এদিকে সকাল ৭ টা নাগাদ ওই কিশোর সবার নজর এড়িয়ে উঠে পড়ে পাশের মোবাইল টাওয়ারে। মাটি থেকে প্রায় ২০০-২৫০ ফুট উঠে বসে থাকে সে। পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা তাকে নামানোর চেষ্টা করলে কোনও লাভ হয়নি। অবশেষে খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। আসে বালুরঘাট থানা ও পতিরামপুর ফাঁড়ি পুলিশ।

পুলিশও নামাতে অসফল হওয়ায় আসে দমকল কর্মী ও বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের কর্মীরা। দুপুর দেড়টা অবধিও নামেনি ওই কিশোর। নামানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে পুলিশ, দমকল ও বিপর্যয় মোকাবিল টিম। গতকাল রাতেও একবার ওই যুবক মোবাইল টাওয়ারে ওঠে। যদিও কিছু পরে আপনা আপনি নেমে যায় বলে স্থানীয়রা জানিয়াছেন।

এবিষয়ে ওই কিশোরের মা জানান, আগে সুস্থ স্বাভাবিক ছিল তার ছেলে। বছর দুয়েক আগে সে ভিন রাজ্যে কাজ করতে যায়। কিছু দিন আগে আসার পর থেকে মানসিক অবসাদে ভুগছিল। মাথার ব্যামো দেখা দেয়। চিকিৎসাও চলছিল তার। আজ ডাক্তারের কাছে যাওয়ার কথা ছিল। সেই সময় সে টাওয়ারে উঠে পরে। তাকে নামানোর চেষ্টা করা হলেও সে নামেনি। পুলিশ প্রশাসন রয়েছে ঘটনাস্থলে। তারাই নামানোর কাজ চলছে।

অন্য দিকে বালুরঘাট থানার পুলিশ জানিয়েছে, খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে যায়। ওই কিশোরকে নামানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। দমকল ও বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের কর্মীরা রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।




You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!