পথ দুর্ঘটনায় মৃত গৃহবধূ, ২ শিশু সহ আহত ৩




ভাঙর, ২৫ জুন: পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল এক গৃহবধূর, আহত দুই শিশু সহ মোট তিনজন। ভাঙর থানার চন্দনেশ্বর এলাকার ঘটনা। মৃত গৃহবধূর নাম বেবিয়া বিবি(২৫)। কাশীপুর থানার সাতুলি গ্রামে বেবিয়ার বাপের বাড়ি। সেখান থেকে দুই সন্তান ও স্বামীকে নিয়ে ভাঙর থানার জালালাবাদে ফিরছিলেন বাইকে করে। মঙ্গলবার ভরদিন বৃষ্টি হওয়ায় ফিরতে পারিনি। এক বাইকে দুই শিশু ও স্ত্রীকে নিয়ে রাতে জালালা বাদ গ্রামে ফিরছিলেন মৃতার স্বামী উসমান তরফদার।




স্থানীয় বাসিন্দাদেড় দাবি একটি লরি পিছন থেকে ধাক্কা মারে উসমানের গাড়িতে। সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে পড়ে যায় গাড়িটি। উসমান এবং তার দুই সন্তান বেঁচে গেলে ও স্ত্রী বেবিয়ার মাথার উপর দিয়ে বেরিয়ে যায় লরিটি। ঘটনার পর লরিটি নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে চালক। কিন্তু স্থানীয় বাসিন্দা ঘাতক লরিটিকে ধরে ফেললে ও পালিয়ে যায় চালক। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় বেবিয়া বিবির। আহত অবস্থায় তার দুই শিশু ও স্বামী উসমানকে ভর্তি করাহয় স্থানীয় নার্সিংহোমে। সেখানে সাময়িক চিকিৎসার পর ছেরে দেওয়া হয় তাদের।

এদিকে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যুর খবর শুনে ঘটনাস্থলে যায় ভাঙর থানার পুলিশ। বেবিয়ার মৃত্যুর খবর শুনে অবরুদ্ধ হয়ে পরে সোনারপুর ঘটকপুকুর রাস্থার এই চন্দনেশ্বর এলাকা। সাধারণ মানুষ ক্ষিপ্ত হয়ে ভাঙচুর চালায় ঘাতক লরিতিতে। ভাঙর থানার পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আশে এবং ঘাতক গারিটিকে ও আটক করে। ঘাতক গাড়ির চালকের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ। মৃত বেবিয়া বিবিকে আজ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। পুলিশ সূত্রে খবর এদের কারর মাথায় হেলমেট ছিলনা।




error: Content is protected !!