পতিরামে আত্মঘাতী ছাত্রীর গৃহ শিক্ষককে গ্রেপ্তার করল পুলিশ




বালুরঘাট, ৬ ডিসেম্বর: আত্মঘাতী হওয়া স্কুল ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি করার ঘটনায় অভিযুক্ত গৃহ শিক্ষককে গ্রেপ্তার করল বালুরঘাট থানার পুলিশ। বুধবার দুপুরে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে বালুরঘাটের ঠাকুরপুরা এলাকা থেকে গৃহ শিক্ষক সুজন মণ্ডলকে(৩৭) গ্রেপ্তার করে। আগামী কাল তাকে বালুরঘাট আদালতে তোলা হবে। পাশাপাশি অভিযুক্তকে পুলিশি হেফাজতে নেওয়ার আর্জি আদালতের কাছে জানানো হবে বলে ডিএসপি হেড কোয়ার্টার সৌমজিৎ বড়ুয়া জানিয়েছেন। পাশাপাশি গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।







প্রসঙ্গত, বালুরঘাট থানার ঝাপুর্সি এলাকার মীরা রায় পতিরাম গার্লস হাই স্কুলে ক্লাস টেনে পাঠ্যরত ছিল। সে বিজ্ঞান বিভাগের জন্য গৃহ শিক্ষক সুজন মণ্ডলের কাছে পড়ত। অবিবাহিত সুজন মণ্ডলের বাড়ি কুমারগঞ্জ থানার বেলতারা এলাকায়। বিগত ১৭ বছর ধরে পতিরাম এলাকায় গৃহ শিক্ষকতার কাজ করে আসছেন তিনি। এছাড়া একসময় মোহনা  গ্রামপঞ্চায়েতের উপপ্রধান ছিলেন সুজন মণ্ডল। বছর দুয়েক থেকে মীরা রায় তার কাছে পড়ছিল। গত মাসের ২৫ তারিখ গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হয় সে। প্রথম দিকে তেমন কিছু মনে না হলেও মৃতার খাতা থেকে পাওয়া একটি চিঠিতে মৃত্যুর কারণ নিয়ে নানান প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। মৃত ছাত্রী গৃহ শিক্ষককে ভালবাসতো। আর সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ওই ছাত্রীর সঙ্গে শ্লীলতাহানি করত অভিযুক্ত গৃহ শিক্ষক। এদিকে অভিযুক্তের অন্যত্র বিয়ের কথা বার্তা চলছিল। সেটি হয়তো মীরার কানে আসে। এর পরই সে আত্মঘাতী হয়। বালুরঘাট থানায় মৃতার পরিবারের পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। এরপরই পুলিশ গোপন সূত্রে খবর পেয়ে এদিন দুপুরে পালিয়ে যাওয়ার সময় ঠাকুরপুরা এলাকা থেকে ওই গৃহ শিক্ষককে গ্রেপ্তার করে। আগামী কাল তাকে আদালতে তোলা হবে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বালুরঘাট থানার পুলিশ।




এবিষয়ে ডিএসপি হেড কোয়ার্টার সৌমজিৎ বড়ুয়া জানান, মৃতা ছাত্রীর সঙ্গে অভিযুক্তের ভালবাসার সম্পর্ক ছিল। সেই সম্পর্কের সুযোগকে কাজে লাগিয়ে মৃতার ছাত্রীর গায়ে হাত দিত। মৃতার বই খাতা থেকে পাওয়া এমন এক লেখা চিঠি তারা পেয়েছেন। তার পর এদিন গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ওই গৃহ শিক্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পাশাপাশি গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।








You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!