মমতা ব্যানার্জি ও ঘাসফুল ছাড়া কারও কোন পরিচিতি নেই, কোন্দল রুখতে কড়া অর্পিতা ঘোষ




কুমারগঞ্জ, ১৩ এপ্রিল: মমতা ব্যানার্জি ও ঘাস ফুল বাদ দিয়ে আর কারো কোন পরিচিতি নেই। যারা মমতা ব্যানার্জি ও ঘাস ফুল থেকে বেরিয়ে নির্দল হয়ে ভোটে দাঁড়াচ্ছেন তারা পরে বুঝতে পারবেন মমতা ব্যানার্জি ও ঘাস ফুলের জোর কতটা। আর যে মুহূর্তে পার্টি থেকে নির্দল হয়ে কেউ ভোটে দাঁড়াবে সে তখনই বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে। দলীয় গোষ্ঠী কোন্দল রুখতে ও টিকিট না পেয়ে তৃণমূল ছেড়ে নির্দল হয়ে ভোটে দাঁড়ানো প্রার্থীদের উদ্দেশ্যে এমন ভাবেই কড়া দাওয়ায় দিলেন বালুরঘাটের সাংসদ তথা তৃণমূল নেত্রী অর্পিতা ঘোষ।





দলীয় প্রার্থীদের হয়ে শুক্রবার থেকে প্রচার শুরু করলেন বালুরঘাটের সাংসদ অর্পিতা ঘোষ। শুক্রবার কুমারগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় প্রচার চালান তিনি। পাশাপাশি জেলা পরিষদ, গ্রাম পঞ্চায়েত ও পঞ্চায়েত সমিতির প্রার্থীদের সঙ্গে পরিচিতি পর্ব সারেন অর্পিতা ঘোষ। প্রার্থী পরিচয় পর্ব অনুষ্ঠান হয় কুমারগঞ্জ হাই স্কুল মাঠে। অনুষ্ঠান শেষে কংগ্রেসের বেশ কয়েকজন কর্মী সমর্থক তৃণমূলে যোগ দেন। তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন সাংসদ অর্পিতা ঘোষ। এছাড়াও ছিলেন কুমারগঞ্জের বিধায়ক তথা তৃণমূল নেতা তোরাফ হোসেন মণ্ডল সহ অন্যান্য জেলা নেতৃত্ব।





পঞ্চায়েত নির্বাচনে সকলকে একত্রি ও সংগঠিত ভাবে মাঠে নামার নির্দেশ দেন অর্পিতা ঘোষ। অনুষ্ঠান শেষে গোষ্ঠী কোন্দল ও টিকিট না পেয়ে তৃণমূল ছেড়ে নির্দল হয়ে দাঁড়ানো প্রার্থী উদ্দেশ্যে বলেন, যখনই কেউ দল থেকে বেরিয়ে যাবে, সে তখন বিচ্ছিন্ন মানুষ। একা মানুষ হয়ে যাবে। একটা লাঠিকে ভাঙা যতটা সহজ, দশটা লাঠিকে ভাঙা ততটাই কঠিন। তাই আজ যারা তৃণমূল ছেড়ে নির্দল হয়ে ভোটে দাঁড়াছেন তারা আসলে বুঝতে পারবে মমতা ব্যানার্জি ও ঘাস ফুলের ছবির জোর কতটা।







You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!