টাকার অভাবে ফিরিয়ে দিয়েছে হাসপাতাল, মৃত্যুর অপেক্ষায় অসহায় ঢোলের জাদুকর




আলিপুরদুয়ার, ৫ মার্চ: টাকা নেই তাই ঠাকুরপুকুর ক্যান্সার হাসপাতাল ফিরিয়ে দিয়েছে বঙ্গরত্ন বিখ্যাত ঢোলবাদক বলরাম হাজরাকে। ৪লক্ষ টাকা লাগবে চিকিৎসার জন্য। টাকা নেই। তাই চিকিৎসা হয়নি বিখ্যাত ঢোলের জাদুকর বলরাম হাজরার। অগত্যা বাড়ি এসে মাঝে মাঝেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন ৭১বছর বয়সী ঢোলবাদক বলরাম হাজরা। কখনও তাঁকে ভরতি হতে হচ্ছে আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে। আলিপুরদুয়ারের জেলা সভাধিপতি মোহন শর্মা ও বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তী তাঁকে ৩০হাজার টাকা দিয়ে পাঠিয়েছিলেন কলকাতায়। এক সঙ্গীকে নিয়ে বলরাম হাজরা কলকাতা গিয়েছিলেন। ঠাকুরপুকুরে ডাক্তার দেখানো হয়েছে। কিন্তু টাকার অভাবে ভরতি হতে পারেননি। চিকিৎসা হয়নি। ফিরে আসেন তারা। অগত্যা অসুস্থ শরীর নিয়ে এখন পড়ে আছেন আলিপুরদুয়ারের পাটকাপাড়া গ্রামে।









 

এখন নুন আনতে পান্তা ফুরোয়। কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের ভাতা বন্ধ। টাকার অভাবে চিকিৎসা হয়নি। এখন সংসার চালানোই দায় হয়ে পড়েছে বলরাম হাজরার। শুধু এই রাজ্য নয়। দেশের বিভিন্ন রাজ্যে বলরাম হাজরার ঢোলের জাদু সাধারণ মানুষ কে মুগ্ধ করেছে। তিনি অসংখ্য পুরস্কার পেয়েছেন। রাজ্য সরকার তাকে বঙ্গরত্ন সম্মানেও ভূষিত করেছে। কিন্তু সেই বঙ্গরত্ন ঢোলবাদকের এখন চিকিৎসা করার টাকা নেই। নেই বেঁচে থাকার সামান্য টাকা পয়সাও। অভাব অনটনে তিনি এখন জীর্ণ। ভাল নেই বলরাম। এক ছেলে রয়েছেন। তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন। ফলে দেখার কেউ নেই বলরামের।

এখন পুরস্কারগুলি ছাড়া আর কিছু নেই বিখ্যাৎ ঢোলবাদক বলরাম হাজরার।







You May Also Like

error: Content is protected !!