মাধ্যমিকে মেধা তালিকায় প্রথম দশে কোচবিহারের ৯ ছাত্রছাত্রী




কোচবিহার, ৬জুন: আজ প্রকাশিত হল মাধ্যমিকের ফল। এবার মাধ্যমিকের ফলাফলে জেলার জয় জয় কার। রাজ্যে ৬৮৯ নম্বর পেয়ে প্রথম হয়েছেন কোচবিহারের সঞ্জীবনী দেবনাথ। সে সুনীতি অ্যাকাডেমির ছাত্রী। ৬৮৭ নম্বর পেয়ে রাজ্যের তৃতীয় স্থান পেয়েছেন তিন জন। তার মধ্যে রয়েছে সুনীতি অ্যাকাডেমির আরও এক ছাত্রী। তার নাম ময়ূরাক্ষী সাহা। তার প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৭। এছাড়াও প্রথম দশে রয়েছে কোচবিহারের সুনীতি অ্যাকাডেমির অঙ্কিতা দাস ও ঐতিয্য সাহা,। অঙ্কিতা দাস পঞ্চম স্থান পেয়েছে। আর ঐতিয্য সাহা পেয়েছে নবম স্থান। এছাড়াও প্রথম দশে রয়েছেন কোচবিহারের আরও বেশ কেয়ক জন বলে জানা গিয়েছে।




গত ১২ মার্চ শুরু হয়েছিল মাধ্যমিক পরীক্ষা। শেষ হয়েছিল ১৬ এপ্রিল। ৭৭ দিনের মাথায় হল ফলপ্রকাশ। চলতি বছরে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১০ লাখ ৮৪ হাজার ১৭৮ জন। ছাত্রীদের সংখ্যা ১১.৯১ শতাংশ বেশি। এবছর মাধ্যমিকে পাশের হার ৮৪.৪৯ শতাংশ। ফল প্রকাশের পর সঞ্জীবনী বলে, আমি আশাই করতে পারিনি এতটা ভালো ফল হবে। ভেবে ছিলাম প্রথম দশের মধ্যে থাকবো। এই ফলাফল করে আমি ভীষণ খুশি। তবে তিনি আরও বলেন যতটা পেয়েছি পড়েছি।

দেখা নেওয়া যাক রাজ্যের প্রথম দশে থাকা কোচবিহারের ছাত্রী-ছাত্রীদের নাম ও স্কুলের তালিকা
১ সঞ্জীবনী দেবনাথ, স্কুল- সুনীতি অ্যাকাডেমির (ছাত্রী) রাজ্যে প্রথম
২ ময়ূরাক্ষী সরকার, স্কুল সুনীতি অ্যাকাডেমির (ছাত্রী) রাজ্যে তৃতীয়
৩ অঙ্কিতা দাস, স্কুল সুনীতি অ্যাকাডেমির (ছাত্রী) রাজ্যে পঞ্চম
৪ সুমিত বাগচি, স্কুল দিনহাটা হাইস্কুল (ছাত্র) রাজ্যে ষষ্ঠ
৫ মহাশ্বেতা হোমরায়, স্কুল মনিন্দ্র নাথ হাইস্কুল (ছাত্রী) রাজ্যে সপ্তম
৬ দেবস্মিত রায়, স্কুল রামভোলা হাইস্কুল (ছাত্র) রাজ্যে অষ্টম
৭ ঐতিহ্য সাহা, স্কুল সুনীতি অ্যাকাডেমির (ছাত্রী) রাজ্যে নবম
৮ সুমন সাহা, মাথাভাঙা হাইস্কুল (ছাত্র) রাজ্যে দশম
৯ বৈদুর্জ বিশ্বাস,মাথাভাঙা হাইস্কুল (ছাত্র), রাজ্যে দশম

আজ মাধ্যমিকের রেজাল্ট প্রকাশ হওয়ার পর যখন সারা রাজ্য তোলপাড় রাজ্যে মেধাতালিকায় ১০জনের মধ্যে ৯ জনেই কোচবিহার জেলা। ঠিক তখনেই উত্তর বঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ জেলার প্রতিটি ছাত্র ছাত্রীর বাড়ি ছূটে চলেছেন। তাদেরকে শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন। সব শেষ তিনি সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানান, “আমাদের জেলার ছেলে মেয়েরা এত সুন্দর রেজাল্ট করেছে। আমি তাদের শুভেচ্ছা বার্তা দেওয়ার জন্য খুশি হয়ে সকলের বাড়িতে যাচ্ছি। এই জেলার মেধাতালিকার ছাত্র ছাত্রীদের কোন রকম সহযোগিতার প্রয়োজন হলে অবশ্যই তাকে আমি বা আমার সরকার তাদের কে সাহায্য করবে।”




You May Also Like

error: Content is protected !!