আইসিডিএস স্কুলের তেল চুরি করে বাড়ি নিয়ে যাওয়ার সময় হাতেনাতে ধরা পড়লো আইসিডিএস কর্মী




দক্ষিণ ২৪ পরগনা,১৩ নভেম্বর:একেই বলে ধর্মের কল বাতাসে নড়ে,আইসিডিএস স্কুলের সরষের তেল চুরি করে বাড়ি নিয়ে যাওয়ার সময় গ্রামের মহিলাদের হাতে ধরা পড়ল আই সি ডি এস কর্মী মাধবী মাইতি। দক্ষিণ চব্বিশপরগনা জেলার দিগম্বর পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের ৪২১ নম্বর আইসিডিএস সেন্টারের দিদিমণি মাধবী মাইতি, বর্তমানে তিনি ৪২১ নম্বর স্কুলের এর চার্জে আছেন। আসলে তিনি রামনগর আবাদের আইসিডিএস স্কুলের দিদিমণি। ৪২১ নম্বর স্কুলের কোন দিদিমণি না থাকায় তিনি এক বছর যাবৎ দায়িত্ব পেয়েছেন।




তার নিজের কথায় তিনি মাসের মধ্যে একবারই আসে হিসাব নিকাশ নেওয়ার জন্য আসলে সেন্টারটি চালায় সুলেখা হালদার ওই স্কুলের রান্নার দিদিমনি তিনি। আজ স্কুল ছেড়ে যখন মাধবী মাইতি বাড়ি যাচ্ছিলেন তখন গ্রামের মহিলারা দেখেন তার হাতে একটি বড় ব্যাগ, তাদের সন্দেহ হওয়ায় ব্যাগের মধ্যে গ্রামের মহিলারা তদন্ত করে দেখতে চান। প্রথমে দেখাতে না চাইলেও গ্রামের মহিলাদের কাছে শেষ পর্যন্ত ব্যাগটি খুলে দেখান। দেখা যায় ২লিটার সরিষার তেল রয়েছে।

তখন গ্রামের মহিলারা দিদিমণিকে আটকে রেখে খবর দেন এলাকায়। খবর পেয়ে প্রায় কয়েক শত মহিলা এবং পুরুষ জড়ো হয় আই সি ডি এস সেন্টারে কাছে। মাধবী মাইতি স্বীকার করেন যে তার সঙ্গী সুলেখা হালদার তাকে জোরপূর্বক ওই তেলের বোতল দিয়েছে। তখন গ্রামের মহিলারা দুজন দিদিমণিকে আটক করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে আইসিডিএস স্কুলের কাছে।

পঞ্চায়েতের প্রাক্তন সদস্য আব্বাস গাজীর মধ্যস্থতায় স্কুলে চাবি বন্ধ করে দিদিমণি ২ জন কে ছেড়ে দেওয়া হয়, তবে এই ব্যাপারে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তিনি দিগম্বর পুর অঞ্চলের রামনগর আবাদের আইসিডিএস স্কুলের দিদিমণি এখানে প্রতি মাসে এক বার আসেন।

এখানে কোনো দিদিমণি না থাকায় তিনি চার্জে আছেন, সুলেখা হালদার এই আইসিডিএস স্কুলের রান্নার কাজ করেন। সেই তাকে দুটি তেলের বোতল দিয়েছেন। বর্তমানে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। এখন দেখার দোষীরা শাস্তি পায় কি না।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!