বন্যায় পাশে দাঁড়ায়নি পঞ্চায়েত, বিক্ষোভ-ভাঙচুর

মালদা, ১২ অক্টোবর : দুর্ভোগের দিনে পাশে দাঁড়ায়নি পঞ্চায়েত। বন্যার সময় ত্রাণ এলেও দেওয়া হয়নি কাউকেই। নির্মল বাংলা অভিযানের মেলেনি শৌচাগার। প্রধানকে না পেয়ে পঞ্চায়েত দপ্তরে ব্যাপক ভাঙচুর চালায় ক্ষুব্ধ গ্রামবাসী। তালা বন্দী করে আটকে রাখা হয় পঞ্চায়েত কর্মীদের। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পঞ্চায়েত কর্মীদের উদ্ধার করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনায় মালদার রতুয়া ১ নম্বর ব্লকের মহানন্দাটোলা গ্রামপঞ্চায়েতের।

এবছর বন্যার ভয়াবহ রূপ দেখেছে মালদা। জেলার অন্যান্য অঞ্চলের মতো প্লাবিত হয়েছিল মহানন্দাটোলা পঞ্চায়েতের বিস্তীর্ণ এলাকা। তবে এলাকাবাসীর মতে বন্যার দুর্দিনে পাশে দাঁড়ায়নি পঞ্চায়েত। তাই বিভিন্ন দাবিদাবা নিয়ে মানিকটোলা, আসুটোলা সহ বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দারা পঞ্চায়েতের ঘেরাও করতে বৃহস্পতিবার দুপুরে হাজির হয় মহানন্দাটোলা পঞ্চায়েত অফিসে। তবে পঞ্চায়েত ঘেরাওয়ের কথা জানতে পেরে পঞ্চায়েত ছেড়ে পালায় কংগ্রেস প্রধান সুকেশ যাদব। গ্রামবাসী প্রধানকে না পেয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েন। ক্ষুব্ধ গ্রামবাসী চালায় পঞ্চায়েত অফিসে তাণ্ডব। ভাঙচুর করা হয় পঞ্চায়েতের একাধিক সামগ্রী। ছিঁড়ে ফেলেন পঞ্চায়েতের নথিপত্র। পঞ্চায়েতের কর্মীদের তালা বন্দি করে রাখেন। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন রতুয়া থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। পুলিশি হস্তক্ষেপে পঞ্চায়েত কর্মীদের মুক্ত করা। দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ,”নির্মল বাংলা অভিযানের শৌচাগারের ১ কোটি ৬৫ লক্ষ টাকা বরাদ্দ হলেও কোনো কাজ করেনি এই কংগ্রেসের প্রধান। পাইনি শৌচাগার এলাকার বহু মানুষ। কিন্তু ভুয়ো ছবি তুলে বিল পাস করিয়েছে পঞ্চায়েতের প্রধান সহ কর্মীরা। গ্রামবাসীর আরো অভিযোগ, বন্যার সময় করুন অবস্থায় আমাদের দিকে ফিরেও তাকাইনি প্রধান। অথচ ত্রাণ সামগ্রী পঞ্চায়েতে এসেছে। কিন্তু কোনো বন্যা দুর্গতদের হাতে তুলে দেওয়া হয়নি। এই পরিস্থিতিতে আজ আমাদের পঞ্চায়েতে আসার কথা শুনে পালিয়েছে প্রধান। তাই ভাঙচুর চালিয়েছি। আমরা চাই পঞ্চায়েত আমাদের প্রাপ্য জিনিস দিক।” তবে পরিস্থিতি পুলিশি হস্তক্ষেপে শান্ত হলেও খোঁজ নেই পঞ্চায়েতের কংগ্রেসের প্রধান সুকেশ যাদবের। তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এদিকে ঘটনা প্রসঙ্গে রতুয়া ১নম্বর ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক অর্জুন পালের সাথে ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তিনি কিছুই জানাতে চাননি।

ভিডিও-


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *