নাকা চেকিংএর নামে পুলিশের বিরুদ্ধে জুলুমবাজির অভিযোগ,পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তি




উত্তর দিনাজপুর,১০ আগস্টঃ পুলিশের নাকা চেকিংএ আটকে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ছোট প্রাইভেট বোলবোম যাওয়ার গাড়িকে পেছন থেকে ধাক্কা মারে এক পন্যবাহী লড়ি। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় একজনের আহত তিনজন। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল গভীর রাতে উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুর থানার চৌরঙ্গীমোড় এলাকায় ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কে। নাকা চেকিংএর নামে পুলিশের বিরুদ্ধে জুলুমবাজির অভিযোগ তুলে স্থানীয় বাসিন্দারা জাতীয় সড়ক অবরোধ করলে পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তি। অবরোধ তুলতে পুলিশের লাঠিচার্জ, এলাকায় উত্তেজনা।




পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গতকাল রাত সাড়ে বারোটা নাগাদ ইসলামপুর শহরের চৌরঙ্গী মোড়ে ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কের উপর নাকা চেকিং চালাচ্ছিল ইসলামপুর থানার পুলিশ। শিলিগুড়ি থেকে ঝাড়খন্ডের দেওঘরে বাবাধামে যাওয়ার জন্য একটি ছোট প্রাইভেট গাড়ি নাকা চেকিংএ আটকে পরে। আচমকাই দাঁড়িয়ে থাকা ওই বোম যাত্রী থাকা ছোট গাড়িটিকে পেছন থেকে সজোরে ধাক্কা মারে একটি মাল বোঝাই লড়ি। সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় শিলিগুড়ির বাসিন্দা প্রভু পাশমান (৫০) নামে এক ব্যাক্তির।

গুরুতর আহত চালকসহ আরও তিনজন। তাদের ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হতাহতরা সকলেই শিলিগুড়ির বাসিন্দা। তারা শিলিগুড়ি থেকে গাড়ি নিয়ে ঝাড়খন্ডের দেওঘরে বাবাধামে পুজো দিতে যাচ্ছিলেন। গতকাল রাতের এই দুর্ঘটনার কারন হিসেবে জাতীয় সড়কে নাকাচেকিং কেই দায়ী করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

তাদের অভিযোগ, নাকা চেকিং এর নামে পুলিশের জুলুমবাজি চলছে। এরই প্রতিবাদে গতকাল জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখালে পুলিশের সাথে স্থানীয় বাসিন্দাদের বচসা ও ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায়। অবরোধ তুলতে পুলিশ লাঠিচার্জও করে বলে অভিযোগ।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!