CPIM ছাড়লেন CPIM-র কেন্দ্রীয় কমিটির মইনুল হাসান




বহরমপুর, ৭জুলাই: দল ছাড়লেন সিপিএম এর কেন্দ্রীয় কমিটির মইনুল হাসান। শনিবার দুপুরে বহরমপুর রানীবাগান এলাকায় নিজের বাড়িতে বসে সাংবাদিক সম্মেলন করে দল ছাড়ার কথা ঘোষনা করেন। এদিন তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন “দীর্ঘদিন ধরে বামফ্রন্ট তথা নেতা হিসাবে কাজ করেছেন। অনেকগুলি কারনে আজ সিপিএম তথা বামফ্রন্ট ত্যাগ করছেন। ২০১১সালের পর থেকে দলের মধ্যে আমার মতামতকে গ্রহণ যোগ্যতা দেওয়া হচ্ছিল না। তাই এই ভাবে পার্টিতে থাকাটা যুক্তিহীন। মূলত ৩টি কারনের জন্য তিনি পার্টি ত্যাগ করছেন।




সেগুলি হল প্রথমত, আমার এবং আমাদের দেশের সামনে সবছেয়ে বড় বিপদ হচ্ছে বিজেপি, সেই বিজেপির বিরুদ্ধে সার্বিক জোট গড়ে তোলা দরকার। কোন রকম পিছুটান রেখে এই বিজেপিকে হারানো যাবে না। বিজেপি সারা দেশে ব্যাপক ক্ষতি করেছে। কিন্তু সার্বিক ঐক্য গড়ে তোলার ব্যাপারে দলের মধ্যে দোদুল্যমানতা দেখেছি। সিপিএমের নতুন ডকমেন্টারিতে বিজেপিকে প্রধান বিপদ বলে উল্লেখ করা হলেও একে ফ্যাসিবাদী দল বলে কোথাও উল্লেখ নেই।

দ্বিতীয়ত, সিপিএমকে দীর্ঘদিন ধরে বলা হচ্ছে সামাজিক বিন্যাস অনুযায়ী পার্টি নেতৃত্ব তৈরী হবে। ১৯৯৫সাল থেকে আমি রাজ্য কমিটির সদস্য থাকার সময় থেকে বললেও কোন কাজ হয়নি। দলীত মুসলমানদের এই পার্টিতে কোন পদে স্থান দেওয়া হয়নি। যেটা অন্যান্য পার্টি হয়তো চেষ্টা করেছে কিন্তু সিপিএম কতটা চেষ্টা করেছে জানি না। তবে মুর্শিদাবাদে দলীত মুসলমান কোন নেতা নেই। কোন মুসলমান মহিলা রাজ্য কমিটির সদস্য আজ পর্যন্ত হয়নি এটাই বাস্তব চিত্র।

তৃতীয়ত, আগামী লোকসভা নির্বাচনে ভারতবর্ষে প্রায় ১৫কোটি ছেলে মেয়ে ভোট দেবে যাদের বয়স হচ্ছে ১৯বছর। অথচ নতুন প্রজন্মের কোন ছেলে মেয়েকে এই পার্টিতে স্থান দেওয়া হচ্ছে না। অথচ যাদের বয়স ৬০-৭০পেরিয়ে গেছে তারাই নেতৃত্ব দিচ্ছেন এখনো।মূলত এই তিনটি কারন আমি সিপিএমের সাথে সেয়ার করতে পারছিলাম না। তাই বাধ্য হয়ে আজ সিপিএম পার্টি ত্যাগ করলাম। যদিও আমি এই মহুর্তে নতুন কোন দলে যোগ দিচ্ছি না বলে তিনি জানিয়েছেন।




error: Content is protected !!