রাতভর ভারি বর্ষণে বিপর্যস্ত মুম্বাই




ওয়েব ডেস্ক, ৯ই জুলাই: রাত থেকে ভারি বর্ষণে বিপর্যস্ত মুম্বাই। সপ্তাহের প্রথম কাজ এর দিন হওয়া তে প্রচুর মানুষ রাস্তায় বেরিয়ে ছিলেন। কেউ যাচ্ছিলেন স্কুলে অথবা কেউ অফিসে। কিন্তু ভারি বৃষ্টি আরও বাড়তে থাকে। নিকাশি গুল ধীরে ধীরে বন্ধ হয়ে যাওয়াতে জল এবার জমতে থাকে রাস্তায়। থমকে যায় ট্রাফিক, শয়ে শয়ে গাড়ি রাস্তায় দাঁড়িয়ে আছে। এদিকে ভরা কোটাল জোয়ার এলে সমুদ্রের জল উঠে আসে মহানগরীর প্রান কেন্দ্রে। নদীর মত জল এর স্রোত বয়ে যাচ্ছে রাস্তা দিয়ে।




ট্র্যাক এ জল উঠে যাওয়া তে ট্রেন চলাচল বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। ওয়েস্টার্ন রেল ও সেন্ট্রাল রেল যে কোন মুল্যে মাঝখানে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেন গুলি কে গন্তব্যে পৌঁছে দিতে চাইছে। কিন্তু হারবার লাইন পুরোপুরি জল এ ডুবে যাওয়াতে ট্রেন সম্পূর্ণ বন্ধ। স্কুল কলেজ গুলিতে ছুটি ঘোষণা করে দিয়েছে।

রাস্তায় এখন প্রচুর লোক, কিন্তু তারা জানে না তারা কি ভাবে তাদের গন্তব্য অথবা বাড়ীতে পৌঁছাবে। স্থানীয় লোক, সিভিল ডিফেন্স, পুলিস, ফায়ার ডিপার্টমেন্ট, যথাসাধ্য মানুষ কে সাহায্য করার চেষ্টা করে যাচ্ছে। তবুও ধীরে ধীরে পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে। সমুদ্র উত্তাল, মৎস্যজীবীদের জন্যও সতর্কতা জারি করা হয়েছে ও গভির সমুদ্রে যেতে বারন করা হয়েছে।

এদিকে আবহাওয়া দপ্তর আরও চব্বিশ ঘণ্টা আরও ভারি বর্ষণ এর পূর্বাভাস দিয়েছে। পশ্চিম উপকুল বরাবর মৌসুমি অক্ষ রেখা সক্রিয় থাকার জন্য এত ভারি বর্ষণ। দক্ষিন গুজরাট থেকে গয়া পর্যন্ত এরকম ভারি বৃষ্টি চলতেই থাকবে। এদিকে বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট নিম্নচাপ টি ওড়িশা উপকুল এ সরে যাওয়াতে কলকাতা ও তৎসংলগ্ন এলাকা তে বৃষ্টি কমেছে। তবে ওড়িশা, ছত্তিসগড়, অন্ধ্রপ্রদেশ ও তেলেঙ্গানাতে এই নিম্নচাপ এর প্রভাবে বৃষ্টি জারি থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।




You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!