মাও মোকাবিলায় বিজেপিকে বিধলেন মমতা ব্যানার্জি




কলকাতা,১২ নভেম্বর:ছত্তিশগড়ে মাও হামলার কথা বলে বিজেপিকে কটাক্ষ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সমালোচনা করলেন রমন সিং সরকারকের প্রশাসনিক দক্ষতাকে৷ পোস্তায় জগদ্ধাত্রী পুজোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে জানাতে ভুললেন না, ‘মাওবাদীদের মোকাবিলায় বাংলা দেশের সামনে উদাহরণ৷’




সোমবার ছিল ছত্তিশগড়ে বিধানসভা ভোটের প্রথম পর্ব৷ নকশাল প্রবাভাবিত জেলার ১৮টি কেন্দ্রে এদিন ভোটে হয়৷ ভোটে হিংসা এড়ানো সম্ভব হয়নি৷ এদিন ভোরে টুমাকপাল-নয়নার কাছে বিস্ফোরণ হয়৷ মাওবাদীরা এই বিস্ফোরণ করেছে বলে জানা যায়৷ পরে বীজাপুরে শুরু হয় নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে মাওবাদীদের গুলির লড়াই৷ এই সংঘর্ষে মৃত্যু হয় পাঁচ মাওবাদীর৷ জখম কোবরা বাহিনীর পাঁচ জওয়ান৷ ভোটের আগের দিনও সাতটি বিস্ফোরণ হয় বীজাপুরে৷ মুখ্যমন্ত্রী৷ তিনি বলেন, ‘‘দেড় দশক ঝাড়খণ্ডে শাসন করল বিজেপি৷ একটাও উন্নয়ন হয়নি৷ যার ফলে মাওবাদী সমস্যা মোকাবিলা করা সম্ভব হচ্ছে না৷’’ শুধু সমালোচনা করেই থামেননি তিনি, উলটে তুলে ধরেন মাওবাদী সমস্যা মোকাবিলায় তাঁর সরকারের কৃতীত্বের কথা৷

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের ব্যাখ্যা, বিজেপি শাসিত রাজ্যে মাও হিংসার কথা তুলে ধরে এক ঢিলে দুই পাখি মারলেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ প্রথমত, গেরুয়া শিবির প্রায়ই অভিযোগ করেন, তৃণমূলের সঙ্গে মাওবাদীদের যোগ রয়েছে৷ তাই বাংলায় নীরব তারা৷ পোস্তায় মুখ্যমন্ত্রী বোঝানোর চেষ্টা করেন, শাসন পদ্ধতি ঠিক থাকলে ও গরীব গ্রামবাসীদের জন্য উন্নয়ন প্রকল্প চালু করতে পারলে হিংসার পথ থেকে সরে আসেন অতি বামপন্থী সংগঠনের সদস্যরা৷ বিজেপি না পারলেও যা তাঁর সরকার করে দেখিয়েছে৷ মমতার অভিযোগ দেশে বিভেদ ছড়াতেই মাওবাদীদের মোকাবিলা করে না বিজেপি৷ দ্বিতীয়ত, সামনেই ১৯শের লোকসভা নির্বাচন৷ জঙ্গলমহলে পঞ্চায়েতে ভোটে আদিবাসী অধ্যুষিত জঙ্গলমহলে ভালো ফল হয়নি রাজ্যের শাসক দলের৷ ছত্তিশগড়ের আদিবাসী এলাকার সঙ্গে বাংলার জঙ্গলমহলের তুলনা টেনে এদিন রাজ্যের প্রান্তিক মানুষগুলিকেও বার্তা দিলেন মমতা৷




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!