হুগলি জেলায় পঞ্চায়েত গঠনে ব্যস্ততা তুঙ্গে




হুগলি, ৩ অগাস্ট:আগামী সোমবার আদালতের নির্দেশের পরেই সারা রাজ্যে শুরু হবে পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি এবং জেলা পরিষদ গুলিতে বোর্ড গঠনের প্রক্রিয়া । এবারে হুগলি জেলায় বিশেষ করে শ্রীরামপুর উত্তরপাড়া ব্লকের কানাইপুর পঞ্চায়েতের দিকে সকলের আলাদা নজর ছিল । ৩০ আসন বিশিষ্ট কানাইপুর অঞ্চলে ভোটের প্রচারের সময় থেকে এমনকি ভোটের দিনও ব্যাপক গণ্ডগোল হয় ।




যদিও উত্তরপাড়ার বিধায়ক তথা কোন্নগরের বাসিন্দা প্রবীর ঘোষালের নেতৃত্বে এবং কানাইপুর এলাকার বলিষ্ঠ নেতা ভবেশ ঘোষের অক্লান্ত পরিশ্রমে কানাইপুর পঞ্চায়েতের ৩০টি আসনের মধ্যে ২৬টি আসনে তৃণমূল জয় পায় । বাকি ৪টে আসনের মধ্যে ২টিতে সিপিএম এবং ১টা করে আসনে বিজেপি ও নির্দল জয় পেয়েছে ।

প্রবীর ঘোষালের নেতৃত্বে শুধু কানাইপুরই নয় এই ব্লকের প্রায় সব পঞ্চায়েতেই এবার ভালো ফল করেছে তৃণমূল । যদিও কানাইপুর পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠনের ক্ষেত্রে পঞ্চায়েত প্রধান কে হবেন তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়ে গেছে । ইতিমধ্যেই পঞ্চায়েত প্রধান হিসাবে তিনজনের নাম সামনে এসেছে । তারা হলেন এইবারই প্রথম ভোটে জেতা দলের দুর্দিনের ও পুরোনো কর্মী ভবেশ ঘোষ, সমাজসেবী পিন্টু চক্রবর্তী এবং শ্রীরামপুর উত্তরপাড়া পঞ্চায়েত সমিতির বিদায়ী সহ সভাপতি আচ্ছালাল যাদব ।

সমাজসেবী হিসাবে পিন্টু বাবুর এলাকায় নাম থাকলেও ভোটের ময়দানে এবারই তিনি প্রথম জয় পেয়েছেন । অন্যদিকে পঞ্চায়েত সমিতির বিদায়ী সহ সভাপতি আচ্ছালাল যাদবের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ থাকায় দলের কর্মীদের একাংশের সাথে তার বিরোধ বহুবার প্রকাশ্যে চলে এসেছে । সেদিক থেকে এইবার প্রথম ভোটে জিতলেও দলের দুর্দিনের ও পুরোনো লড়াকু কর্মী হিসাবে এলাকায় ভবেশ ঘোষের একটা স্বচ্ছ পরিচিতি রয়েছে । এমনকি এলাকার সাধারণ মানুষ থেকে দলের নিচু ও উঁচু তলার নেতা কর্মীরা ভবেশ বাবুকেই এক প্রকার পঞ্চায়েত প্রধান হিসাবে চাইছেন বলেও জানা গেছে ।

এলাকার মানুষ থেকে দলের নেতা কর্মীরা পরিষ্কার ভাবে জানিয়েছেন কানাইপুর এলাকার উন্নয়নের জন্য প্রধান হিসাবে একজন স্বচ্ছ ভাবমুর্তির মানুষকে প্রয়োজন । অন্যদিকে যদিও এনিয়ে ভাবতে নারাজ ভবেশ বাবু । এবিষয়ে ভবেশ বাবুকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, দলের সিদ্ধান্তই শেষ কথা । শীর্ষ নেতৃত্ব যা সিদ্ধান্ত নেবেন দলের একজন সৈনিক হিসাবে তিনি তা মাথা পেতে মেনে নেবেন ।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!