ইপিএফও অফিস স্থানান্তরিত হল বহরমপুরে




মুর্শিদাবাদ, ২৪ মে: ভারত সরকারের শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের আঞ্চলিক ইপিএফও অফিস স্থানান্তরিত হল জঙ্গিপুর থেকে বহরমপুরে। এদিন বহরমপুরে মোহনা বাসস্ট্যান্ডের তৃতীয়তলে আনুষ্ঠানিকভাবে সাংবাদিক বৈঠকের মাধ্যমে বিষয়টি ঘোষণা করা হয়।




সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন কলকাতা জোনের রিজিউনাল পিএফ কমিশনার নবেন্দ্যু রাই, কলকাতা জোনের অতিরিক্ত সেন্ট্রাল পিএফ কমিশনার এস কে সাংমা, বহরমপুর জোনের পিএফ কমিশনার এম এস আর্য ও অন্যান্য আধিকারিকরা।

জেলার অসংগঠিত কর্মচারীদের পিএফ সংক্রান্ত বিভিন্ন পরিষেবা প্রদানের জন্য এই জেলায় পিএফ অফিস খোলার উদ্যোগ নেন ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি তথা জঙ্গিপুরের তৎকালীন কংগ্রেস সাংসদ প্রণব মুখোপাধ্যায়। প্রণব মুখোপাধ্যায়ের উদ্যোগেই জঙ্গিপুরে খোলা হয় পিএফ অফিস। জঙ্গিপুর পিএফ অফিস পরিসংখ্যান অনুযায়ী বর্তমানে অফিসের পিএফ উপভোক্তার সংখ্যা ৮,৮৫,৬১৫ জন এবং ৪০,৮৩৫ জন পেনশন উপভোক্তা এই অফিসের মাধ্যমে পেনশন পাচ্ছেন।

কলকাতা জোনের রিজিউনাল পিএফ কমিশনার নবেন্দ্যু রাই জানান, “পিএফ উপভোক্তাদের সমস্ত সুবিধা দিতে গেলে BSNL এবং Railtel ইন্টারনেট সংযোগ থাকা অত্যন্ত জরুরী। কিন্তু জঙ্গিপুরে BSNL ইন্টারনেট সংযোগ থাকলেও Railtel ইন্টারনেট সংযোগ পাওয়া যাচ্ছিল না। কিন্তু সদর শহর বহরমপুরে এই দুটি ইন্টারনেট সংযোগ রয়েছে। সেই কারণে উপভোক্তাদের পিএফ সংক্রান্ত সমস্ত সুযোগ সুবিধা দেওয়ার জন্য পিএফ অফিস জঙ্গিপুর থেকে বহরমপুরে সরিয়ে নিয়ে আসা হল।”

তিনি আরও বলেন, “পিএফ নম্বরের সঙ্গে মোবাইল নম্বরের সংযোগ করে ঘরে বসেই উপভোক্তারা সকল প্রকার সুবিধা ও তথ্য জানতে পারবেন। দপ্তরের পক্ষ থেকে প্রতি মাসে এসএমএসের মাধ্যমে উপভোক্তাদের মোবাইলে তথ্য পাঠাবে। তাই উপভোক্তারা ঘরে বসে বা এলাকার কোন ইন্টারনেট কেন্দ্রে গিয়ে কোন মাসে পিএফে টাকা জমা পড়ল কি পড়ল না সেই তথ্য জানতে পারবেন।”

বহরমপুর জোনের পিএফ কমিশনার এম এস আর্য জানান, “জঙ্গিপুরে Railtel ইন্টারনেট সংযোগ না থাকার কারণে টেকনিক্যাল কোনও সমস্যা হলে অফিসের সমস্ত কাজ বন্ধ হয়ে থাকত। কোনও তথ্য আপডেট করতে পারতাম না। এখন থেকে আর এই সমস্যা হবে না।





You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!