যেভাবে মৌ স্বাক্ষর করছেন মমতা ব্যানার্জী, খুব তাড়াতাড়ি মৌ দিদি বলে পরিচিত হবেন: মুকুল রায়







বালুরঘাট, ১৪ মার্চ: আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনকে সামনে রেখে বুধবার দুই দিনাজপুর ও মালদা জেলা বিজেপি নেতৃত্বদের নিয়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হল বালুরঘাট নাট্য মন্দিরে। কর্মশালায় হাজির ছিলেন রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব মুকুল রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক সুব্রত চ্যাট্টার্জী, সাধারণ সম্পাদক উত্তরবঙ্গ প্রতাপ ব্যানার্জী , তিন জেলার জেলা সভাপতি সহ অন্যান্য নেতৃত্ব।




কর্মশালা শেষে মুকুল রায় সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে তীব্র ভাবে আক্রমণ করেন। উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং সফরকে কটাক্ষ করেন মুকুল রায়।তিনি বলেন, “মমতা ব্যানার্জী এখন নাকি মৌ দিদি। একটা সময় সোমনাথ চ্যাটার্জী বিদেশ যেতেন ও রাজ্যে এসে বলতেন মৌ চুক্তি করে এলাম। তেমনি বাংলার মুখ্যমন্ত্রীও বিদেশ যাচ্ছে আর এসে এসে বলছে শিল্প নিয়ে এলাম। শিল্প কি বিজেপির কর্মী সমর্থক? যে পুলিশ দিয়ে ধরে নিয়ে আসবেন। বাংলায় ৫ বার বিজনেস্‌ সামিট হয়েছে। সেখানে বিজনেস্‌ সামিট করতে কত খরচ হয়েছে ও কত টাকার বিনিয়োগ হয়েছে সেই শ্বেতপত্র প্রকাশ করুক। তাহলে তো মানুষ বুঝতে পারবে কত টাকার শিল্প এল। যেভাবে তিনি মৌ স্বাক্ষর করছেন তাতে তিনি মৌ দিদি বলে পরিচিত হবেন।”




পাশাপাশি ত্রিপুরায় এবারের শ্লোগান ছিল ‘চল পালটাই’। আসন্ন পঞ্চায়েত নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের শ্লোগান হল ‘এবার বাংলা’। এই শ্লোগান তারা বাংলা জুড়ে তুলবেন। মমতা ব্যানার্জী বিরোধীদের কথা শুনতে ভয় পান। তাই বিরোধীদের কণ্ঠ রোধ করা হচ্ছে পুলিশ প্রশাসন দিয়ে। সিদ্ধার্থ শঙ্কর রায়ের জামানাকেও হার মানিয়েছেন মমতা ব্যানার্জী। যেই মমতার বিরোধী আওয়াজ তুলছে তার বিরুদ্ধে নানান মামলা দায়ের করে ফাঁসিয়ে দেওয়া হচ্ছে। মুকুল রায় আরও বলেন যে ভাবে বিজেপি রাজ্যে নিজেদের শক্তি বৃদ্ধি করছে তাতে আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচনে ভাল ফল করবেন। এমনকি দুই দিনাজপুর ও মালদার জেলা পরিষদও তারা দখল করবেন বলে জানিয়েছেন। শুধু মাত্র দক্ষিণ দিনাজপুরেই ৬হাজারের বেশি তৃণমূল নেতা কর্মীরা বিজেপিতে যোগদান করতে চলেছেন। সেই লিস্ট তার কাছে এসে পৌঁছেছে বলে মুকুলবাবু জানিয়েছেন।





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!