বিভিন্ন থানায় বিজেপির “গণতন্ত্র বাঁচাও, বাংলা বাঁচাও” অভিযান




ডিডি নিউজ ডেস্ক, ১ জুন: রাজ্য জুড়ে গণতন্ত্র ভুলুণ্ঠিত বলে দাবি বিজেপির। তাই “গণতন্ত্র বাঁচাও বাংলা বাঁচাও” এর লক্ষে রাজ্যের বিভিন্ন থানার সামনে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করল বিজেপি। বিভিন্ন দাবির ভিত্তিতে এবং পুলিশ হয়রানির প্রতিবাদে রাজ্যের বিভিন্ন থানার সামনে অবস্থান বিক্ষোভ করে বিজেপি।




পঞ্চায়েত ভোটের দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের পাশাপাশি পুরুলিয়া বিজেপি কর্মী ত্রিলোচন মাহাতো’কে নৃশংসভাবে খুন করার পর ও তার পরিবার বিচার পাননি। আর সেইসব কারণেই রাজ্যে গণতন্ত্র ফেরানোর লক্ষে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন থানার সামনে অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে বিজেপি।

দক্ষিণ ২৪ পরগনা: দক্ষিণ ২৪ পরগণার সোনারপুর থানার সামনে এদিন একটি বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করল দক্ষিণ ২৪ পরগনা পূর্ব জেলা বিজেপি। এই বিক্ষোভ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির রাজ্য মহিলা মোর্চার সাধারণ সভানেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা বিজেপির অন্যান্য কার্যকর্তারা। এদিন বেলা বারোটা থেকে এই বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে বিজেপি।

রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোটের আগে ও পরে যেভাবে একের পর এক বিজেপি কর্মী সমর্থকদের উপর তৃণমূল কংগ্রেসের সন্ত্রাস চলছে বলে অভিযোগ করেন লকেট। আর তৃণমূলের এই সন্ত্রাসে সম্পূর্ণভাবে পুলিশ মদত করছে বলে ও অভিযোগ করেন তিনি। রাজ্যের পুলিশ কার্যত তৃণমূলের হয়ে কাজ করছে। সেখানে বিজেপি বা বিরোধী কেউই সঠিক বিচার পাচ্ছেন না। ফলে রাজ্যে গণতন্ত্র একেবারে নেই বলেই দাবি করেছেন লকেট।

জলপাইগুড়ি: ভারতীয় জনতা পার্টির পক্ষ থেকে তাদের কর্মী সমর্থকেরা ময়নাগুড়ি থানায় অবস্থান বিক্ষোভ করে ও পরে ময়নাগুড়ি আই সি কে ডেপুটেশন দেওয়া হয়। এ দিনের এই অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দেন অনুপ পাল, শিবশঙ্কর দও, আবির দাস, সুব্রত কর্মকার সহ অন্যান্যরা।

এদিনের এই থানা ঘেরাও ও বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘিরে বিরাট পুলিশবাহিনী মোতায়ন করা হয়। বিজেপি নেতা অনুপ পাল বলেন, পঞ্চায়েত নির্বাচন শুরু থেকে শেষ হওয়া পর্যন্ত বর্তমান শাসক দল বিজেপি কর্মীদের উপর অত্যাচার করে চলেছে। এছাড়াও তিনি বলেন, এই মুহূর্তে ময়নাগুড়ি ব্লকে একশ’র উপর বিজেপি কর্মী ঘর ছাড়া। তারা বাড়ি ঢুকতে পারছে না। বিজেপি কর্মীদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে।

ইটাহার: ইটাহারেও এদিন ভারতীয় জনতা পার্টির পক্ষ থেকে থানা ঘেরাও কর্মসূচী পালন করা হয়। ইটাহার দাস পাড়া দলীয় কার্যালয় থেকে প্রায় এক হাজার বিজেপি কর্মী সমর্থকরা ইটাহারের নানান এলাকা ঘুরে ইটাহার থানায় এসে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন।

এদিন আদিবাসী সম্প্রদায়ের বেশ কিছু মানুষদের তির, ধনুক, তরোয়াল ও লাঠি নিয়ে মিছিলে হাঁটতে দেখা যায়। তারপর ইটাহার ব্লক বিজেপি মণ্ডল কমিটির একটি প্রতিনিধি দল ইটাহার থানার ডেপুটেশন দেন।

দক্ষিণ দিনাজপুর: দলীয় কর্মীদের মিথ্যে মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগে দক্ষিণ দিনাজপুরে ধিক্কার মিছিল ও বিভিন্ন থানা ঘেরাও করল বিজেপি নেতৃত্ব। এদিন দুপুরবেলা বালুরঘাট ও হরিরামপুর বাদে বাকি সমস্ত থানা ঘেরাও করে বিজেপি।

এদিন প্রতিটি থানায় ধিক্কার মিছিল বের করে বিজেপি। সেই মিছিল শহর পরিক্রমা করে থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি কর্মীরা। ঘেরাও শেষে স্মারক লিপি তুলে দেন থানার ওসির হাতে। এদিনের মিছিলে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির সংখ্যালঘু মোর্চার নেত্রী তথা প্রাক্তন বিধায়িকা মাফুজা খাতুন সহ অন্যান্যরা।





Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!