তাড়িয়ে দেওয়া বাবাকে ফের হাসপাতালে ভরতি করল পুলিশ




বালুরঘাট, ১১ জুন: মায়ের মৃত্যুর পর বৃদ্ধ বাবার দায়িত্ব নিতে অস্বীকার ছেলেদের। বৃদ্ধ বাবাকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে ছেলেরা। বাড়ি থেকে বিতাড়িত বৃদ্ধ বাবা ভোলা দাস(৮১) বাধ্য হয়ে আশ্রয় নিয়েছেন রাস্তায়। সোমবার বিকেলে সংবাদমাধ্যম ও পুলিশের সহযোগিতায় অসুস্থ ওই বৃদ্ধকে ভরতি করানো হয় হাসপাতালে। এদিকে ওই বৃদ্ধকে বাড়ি ফেরানো যায় কি ভাবে সে বিষয়টি দেখছেন পুলিশ প্রশাসন।




স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ভোলা দাসের বাড়ি রায়গঞ্জে ছিল। পরে বালুরঘাটের বঙ্গী এলাকায় বসবাস শুরু করেন। বেশকিছুদিন আগে স্ত্রী মারা যান। তিন ছেলের বিয়ে হয়ে গেছে। সবাই আলাদা আলাদা থাকে। কর্ম সূত্রে বড় ছেলে ভিন রাজ্যে থাকে। এবং বাকি দুই ছেলে বালুরঘাটে বিভিন্ন হটেলে রান্নার কাজ করে। নিজেদের সংসারে বৃদ্ধ বাবার ঠাঁই হয়নি। বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছিল ছেলেরা।

বাড়ি ছাড়া হওয়ার পর থেকে ঠিকানা ছিল বালুরঘাট পৌরসভার ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের সন্ধ্যা সিনেমা হল সংলগ্ন সংলাপ ক্লাব এলাকার ফুটপাথ। ফুটপাথ, কখনও লোকের দোকানের সামনে কোনও রকমে মাথা গুঁজে থাকতেন তিনি। প্রথম দিকে কেউ বিষয়টি নজর না দিলেও পরে এলাকাবাসীদের নজরে আসে। এলাকাবাসীরা খাওয়ার, থাকার জন্য মশারি দেয়। বৃদ্ধকে বাড়ি পৌঁছে দিতে স্থানীয় বাসিন্দারা বালুরঘাট থানার পুলিশকে খবর দেয়। সংবাদমাধ্যম ও পুলিশি সহযোগিতায় ওই বৃদ্ধকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভরতি করা হয়।

প্রসঙ্গত, বিগত ৯-১০ মাস থেকে ওই এলাকায় রয়েছে বৃদ্ধ। বেশ কয়েকবার হাসপাতাল ও বাড়ি ফেরানোর চেষ্টা করলেও লাভ কিছু হয়নি। বাড়ি থেকে ফের বের করে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে।

এবিষয়ে স্থানীয় এলাকাবাসী নমিতা বিশ্বাস জানান, দীর্ঘদিন ধরে ওই বৃদ্ধ ওই এলাকায় রয়েছে। কখনও তিনি আবার কখনও অন্য প্রতিবেশীরা খাওয়ার দেন। তিনি শুধু না এলাকার সবাই চান ওই বৃদ্ধর একতা স্থায়ী ব্যবস্থা যাতে হয়। কারণ তারা কয় দিন আর দেখবেন। সাড়া বছর তো আর দেখা সম্ভব নয়।

পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, খবর পেয়ে এদিন ওই বৃদ্ধকে রাস্তা থেকে উদ্ধার করে বালুরঘাট হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। স্থায়ী ভাবে বাড়ি ফেরানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।





You May Also Like

error: Content is protected !!