মাথাভাঙ্গায় পানীয় জলের দাবিতে অবস্থান বিক্ষোভ




কোচবিহার, ১৫ জুলাইঃ পানীয় জল নিয়ে সমস্যা দেখা দিয়েছে মাথাভাঙ্গা পুরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডে। স্থানীয় বাসিন্দাদের অনেকেরই অভিযোগ, দীর্ঘ ৪-৫ মাস থেকে এলাকায় পানীয় জলের পরিসেবা নেই। তিন-চারশো মিটার পথ হেঁটে অন্য জায়গা থেকে জল আনতে হচ্ছে। পুরসভার থেকে পানীয় জলের ট্যাঙ্ক দেওয়া হলেও তা অনিয়মিত। এমনকি ট্যাঙ্কের জল অপরিষ্কার। পান করার অযোগ্য।




বাসিন্দাদের আরও অভিযোগ, এই বিষয়ে পুরসভার চেয়ারম্যান ও ওয়ার্ডের কাউন্সিলারকে বহুবার জানিয়েছেন। কিন্তু প্রায় চার-পাঁচ মাস হয়ে গেলেও পানীয় জলের সমস্যার সুরাহা হয়নি। বিষয়টি নিয়ে পুরসভাকে জানালে তারা পিএইচই-র দেখবে বলে। আর পিএইচই-কে জানানো হলে তারা পুরসভার কথা বলে। এদিন পানীয় জল সমস্যায় জেরবার স্থানীয় বাসিন্দারা তাদের ক্ষোভ উগরে দেন।

তাদের দাবি, অবিলম্বে পানীয় জলের সমস্যার সমাধান করতে হবে। তা না হলে তারা আন্দোলনে নামবে। তারা প্রশাসনের বিরুদ্ধে না গিয়ে জল নেওয়ার বালতি, জগ, গামলা, ড্রাম নিয়ে পুরসভার সামনে অবস্থান বিক্ষোভ করবেন। যতক্ষণ না পুরসভার পক্ষ থেকে পানীয় জলের ব্যবস্থা করা হবে তারা সেখান থেকে সরবেন না।

স্থানীয় বৃদ্ধা রঞ্জনা দত্ত বলেন, “চার–পাঁচ মাস থেকে এই সমস্যা। জল আসে না। প্রায় ২ মাইল পথ হেঁটে জল আনতে হয়। এই বয়সে দূর থেকে জল টানতে কষ্ট হয়। চেয়ারম্যানকে জানানো হয়েছে। কাউন্সিলারকে প্রায়ই জানানো হচ্ছে। পুরসভার পানীয় জলের ট্যাঙ্ক থেকে জল নেই না। এই জল তৃপ্তি হয়না। এগুলি নোংরা থাকে। পরিষ্কার করা হয় না। আমরা চাই পুরসভা পানীয় জলের ব্যবস্থা করুক।”

মাথাভাঙ্গা পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান এই বিষয়ে বলেন, “জলের সমস্যা ছিল। কাউন্সিলারকে বাসিন্দারা বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ জানিয়েছিল। এরপর পিএইচই লোক সেখানে গিয়েছিল। যেহেতু এই লাইনগুলি অনেক পুরনো তাই কিছু সমস্যা রয়েছে। ওয়ার্ডের অনেক এলাকায় সমস্যা মিটেছে। ওই এলাকায় একটু সমস্যা রয়েছে। কয়েকদিনের মধ্যে ওই এলাকার সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হবে।”




You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!