চিকিৎসার গাফিলতিতে রোগী মৃত্যুর অভিযোগ ঘাটাল হাসপাতালে




পশ্চিম মেদিনীপুর,১১ অক্টোবর:-চিকিৎসার গাফিলতিতে রোগী মৃত্যুর অভিযোগ উঠল ঘাটাল হাসপাতালে। এই অভিযোগ তুলে পরিবারের লোকজন হাসপাতাল গেটের সামনে বিক্ষোভ দেখায়। জানা গেছে দাসপুর থানার রাধাকান্তপুরের বাসিন্দা খুকুমনি মাইতি, বয়স ২৫। বাচ্চা হবার জন্য যন্ত্রনা উঠায় মঙ্গলবার রাত্রি ৯ টায় ভর্তি হয়েছিল ঘাটাল হাসপাতালে এবং ডাক্তার জ্যোতির্ময় সামন্তের অান্ডারে।




তারপর ডাক্তার জ্যোতির্ময় সামন্ত দেখে বলে অাজকে সিজার করা যাবেনা কালকে হবে কিন্তু রাতে বার বার যন্ত্রনা উঠলেও কোন কর্ণপাত করেননি নার্সরা বলে পরিবারের অভিযোগ। বুধবার সকালে ডাক্তার এসে খুকুমনি মাইতির সিজার করে পরিবারের লোককে বলে বাচ্চা মারা গেছে তারপর পেশেন্টকে দেখতে দেওয়া হয়নি পরে অবস্থার অবনতি হলে এইচডিইউ তে স্থানান্তরিত করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ কিন্তু প্রসূতিকে দেখতে দেওয়া হয়নি পরিবারের লোকেদের বলে অভিযোগ।

বারবার ডাক্তার সুপারকে পেশেন্টের অবস্থা জানতে চাওয়া হলে কিছু বলতে চাইনি বলে অভিযোগ করে পরিবারের লোক। রাতেই পুলিশ ডেকে নেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। পরিবারের লোককে অাজ সকালে হাসপাতাল থেকে বলা হয় ৭ টা ৪৫ মারা গেছে খুকুমনি মাইতি। পরিবারের লোকের অভিযোগ ডাক্তার গাফিলতির জন্য বাচ্চা ও বাচ্চার মা মারা গেছে। মৃতার স্বামী প্রসেনজিৎ মাইতির অভিযোগ ডাক্তাররা ঠিক সময়ে সিজার করলে বাচ্চা ও বাচ্চার মা বাঁচত তা না করে দেরী করে সিজার করাই মাশুল গুনতে হল অামাদেরকে।

পুরোপুরি ডাক্তার জ্যোতির্ময় সামন্ত ও নার্সদের গাফিলতির জন্য এই পেশেন্ট মারা গেল। সঠিক তদন্ত করে উপযুক্ত শাস্তির দাবী জানাছি বলে জানান মৃতার স্বামী।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!