জয়েন্ট বিডিওর গাড়ির ধাক্কায় আহত বাইক আরোহী, গাড়ি ভাঙচুর ও পথ অবরোধ গঙ্গারামপুরে







গঙ্গারামপুর, ৩১ মার্চ: গঙ্গারামপুরের জয়েন্ট বিডিওর গাড়ি ধাক্কা মারল এক মোটর বাইক আরোহীকে। ঘটনায় গুরুতরভাবে জখম বাইক আরোহী লক্ষ্মী রায়(৪৪)। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠায়।




শনিবার বিকেলে পথ দুর্ঘটনাটি ঘটে গঙ্গারামপুর থানার কাদিঘাট এলাকায়। এদিকে উত্তেজিত জনতা জয়েন্ট বিডিওর গাড়ি ভাঙচুর করে। সাথে সাথে অবরোধ করে রাখে ৫১২নম্বর জাতীয় সড়ক। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় গঙ্গারামপুর থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। আসে গঙ্গারামপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক বিপুল ব্যানার্জি। পথ অবরোধ তুলতে পুলিশ ও জনতার মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। পরে পুলিশি হস্তক্ষেপে প্রায় ঘণ্টাখানেক পরে পথ অবরোধ উঠে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। যদিও পথ দুর্ঘটনার সময় জয়েন্ট বিডিও গাড়িতে ছিলেন না। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।


 

জানা গিয়েছে, এদিন বিকেলে বাইক আরোহী লক্ষ্মী রায় গঙ্গারামপুরের দিক থেকে মোটর বাইক নিয়ে আসছিল গঙ্গারামপুর থানার বেলবাড়ি লক্ষ্মীতলা এলাকায়। অন্যদিকে বুনিয়াদপুর অভিমুখে যাচ্ছিল গঙ্গারামপুরের জয়েন্ট বিডিও সুব্রত শ্যামলের গাড়ি। তবে গাড়িতে তিনি ছিলেন না। অন্যকাজে গাড়িটি যাচ্ছিল বুনিয়াদপুরের দিকে। যাওয়ার পথে কাদিঘাট এলাকায় মোটর বাইকে ধাক্কা মারে জয়েন্ট বিডিওর বোলেরো গাড়িটি। ঘটনায় গুরুতর জখম হন লক্ষ্মী রায়। সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে গঙ্গারামপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে পাঠায়। সেখানেই বর্তমানে চিকিৎসা চলছে লক্ষ্মীবাবুর। এদিকে পথ দুর্ঘটনার পর উত্তেজিত জনতা গাজোল-হিলি ৫১২নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায়। ভাঙচুর করা হয় জয়েন্ট বিডিওর গাড়িতে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে গঙ্গারামপুর থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। আসে গঙ্গারামপুর মহকুমা পুলিশ আধিকারিক বিপুল ব্যানার্জি। পথ অবরোধ তুলতে গেলে উত্তেজিত জনতা ও পুলিশের মধ্যে ধস্তাধস্তিও হয়। অভিযোগ, পথ অবরোধ তুলতে বেশ কয়েকজন আন্দোলনকারীকে মারধোর করে পুলিশ। প্রায় ঘণ্টাখানেক পরে পুলিশি হস্তক্ষেপে পথ অবরোধ ওঠে। এদিকে বোলেরো গাড়িটিকে উদ্ধার করে নিয়ে এসেছে পুলিশ। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে গঙ্গারামপুর থানার পুলিশ।




এবিষয়ে স্থানীয়দের অভিযোগ, ওই এলাকায় ট্র্যাফিক ব্যবস্থা বা পুলিশি ব্যারিকেট না থাকায় মাঝে মধ্যেই ঘটে দুর্ঘটনা। তাদের দাবী পথ দুর্ঘটনা কমাতে পুলিশ প্রশাসন উদ্যোগী হোক। ট্র্যাফিক পুলিশের পাশাপাশি বসানো হোক পুলিশি ব্যারিকেট।

অন্যদিকে গঙ্গারামপুর থানার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, পথ অবরোধের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে তারা যান। আন্দোলকারীদের সঙ্গে কথা বলে অবরোধ তুলে দেওয়া হয়।








You May Also Like

error: Content is protected !!