মতের অমিল, প্রার্থী তালিকার বল রাজ্য নেতৃত্বের দিকে ঠেলে দিল মালদা তৃণমূল সভাপতি







মালদা, ১ এপ্রিল: জেলা পরিষদের প্রার্থী বাছাইয়ের কথা থাকলেও গোষ্ঠী কোন্দলের জেরে কার্যত ভেস্তে গেল কোর কমিটির বৈঠক। ফলে জেলা পরিষদের পদপ্রার্থীর তালিকার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারল না মালদা জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। তবে গোষ্ঠী কোন্দল ঢাকতে সমস্তটাই রাজ্য নেতৃত্বের কোটে বল ঠেলে দিলেন জেলা তৃণমূল সভাপতি। পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগেও যে গোষ্ঠী কোন্দল অব্যাহত রয়েছে মালদায় তা আবারও টের পাওয়া গেল এদিনের মিটিংয়ে কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরীর গরহাজির নিয়ে। শেষমেষ জেলা তৃণমূল সভাপতি ব্লক সভাপতিদের নির্দেশ দেন সোমবার দুপুরের মধ্যে নাম প্রস্তাব করার।




রবিবার বিকেল নাগাদ মালদা জেলা তৃণমূলের কোর কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় শহরের প্রধান কার্যালয় কানিমোর এলাকায়। কথা ছিল বৈঠক শেষে মালদা জেলা পরিষদের ৩৮টি পদের তৃণমূল প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করবেন জেলা সভাপতি মৌয়াজ্জেম হোসেন। সেইমতো সেই সভায় অংশগ্রহণ করেন জেলা তৃণমূলের প্রথম সারির নেতা থেকে শুরু করে ব্লক সভাপতিরা। অবশেষে এই সভায় জেলা পরিষদের প্রার্থীদের নামে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারলেন না জেলা তৃণমূল নেতৃত্ব। বিষয়টি কার্যত রাজ্য নেতৃত্বের কোটে বল ঠেলে দিলেন জেলা তৃণমূল সভাপতি মৌয়াজ্জেম হোসেন।


 

বৈঠক শেষে জেলা তৃণমূল সভাপতি জানান, “নির্বাচন নিয়ে আজ সভা ডাকা হয়েছিল। জেলা পরিষদ, পঞ্চায়েত সমিতি, গ্রামপঞ্চায়েতের প্রার্থী তালিকা নিয়ে বৈঠক ছিল। তা সিদ্ধান্ত করবে রাজ্য নেতৃত্ব। ৩৮টি জেলা পরিষদের প্রার্থীদের কিছু কিছু পরিবর্তন হতে পারে। প্রার্থী নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখানে কখনোই হবে না। মতের অমিলের কারণে রাজ্য নির্বাচন দল চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত করবে।”




তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এতো নির্দেশ, জেলা পর্যবেক্ষক শুভেন্দু অধিকারীর ঐক্যবদ্ধ হয়ে লড়াইয়ের বার্তা মানছেন না জেলা নেতৃত্ব। তারই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে দলের অন্দরমহলে।





You May Also Like

error: Content is protected !!