নির্বাচনে শান্তির ডাক, সুর বাঁধলেন তরণী মোহন







রায়গঞ্জ, ১১ এপ্রিলঃ পঞ্চায়েত নির্বাচনের দাদামা বেজে গেলেও শুরু হয়নি ভোট পর্বের প্রচার বা ভোটের লড়াই, তার আগেই মনোনয়নপত্র দাখিল করাকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তাল হয়েছে গোটা রাজ্য। রক্ত ঝরার পাশাপাশি প্রাণও গিয়েছে। চলেছে তাণ্ডবলীলা। আর এসব রক্ত ঝরানো দৃশ্য ভেসে উঠেছে টিভির পর্দায় বা খবরের কাগজে অথবা সোশ্যাল মিডিয়ায়।




দেখেছেন রায়গঞ্জের লোকসঙ্গীত শিল্পী তরণী মোহন বিশ্বাস। রক্তঝরার সেই দৃশ্যাবলী অবলোকন করে এক মর্মস্পর্শী গান লিখে তা সুরের বাঁধনে বেঁধে ফেললেন শিল্পী তরনী মোহন বিশ্বাস। তার সেই গান জনপ্রিয়তার উচ্চশিখরে পৌঁছে গিয়েছে উত্তর দিনাজপুর জেলার গ্রামবাংলার আনাচে কানাচে। শুধু এজেলাই নয়, জেলার গন্ডী ছাড়িয়ে অন্যান্য জেলাতেও ছড়িয়েছে তার গান।




ভোট আসে ভোট চলেও যায়।




ক্ষমতায় আসা আর যাওয়াতে তেমন কোনও তফাৎ গড়েনা প্রভাব প্রতিপত্তিশীল মানুষের। কিন্তু এই ভোটকে কেন্দ্র করে রক্ত ঝরে বহু সাধারন কর্মী ও সমর্থকের। ঘটে প্রানহানিও। এবারে পঞ্চায়েত নির্বাচনের নির্ঘন্ট প্রকাশ ও মনোনয়ন দাখিল শুরুর দিন থেকে রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়েছে গোটা বাংলা। সেই ছবিই গানের কলিতে ফুটিয়ে তুলেছেন উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জের কাশীবাটির বাসিন্দা লোকসঙ্গীত শিল্পী তরনী মোহন বিশ্বাস।




লোকসঙ্গীত শিল্পী তরণী মোহন বিশ্বাস জানালেন, দীর্ঘদিন ধরে গ্রামবাংলার এই ভোট দিয়ে আসছেন, মেতেছেন ভোট উৎসবে। কিন্তু এমন ভয়ঙ্কর দিন কোনোদিন দেখেননি। সমাজের কাছে তার বার্তা বন্ধ হোক হানাহানি, মানুষকে প্রয়োগ করতে দেওয়া হোক তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার। আর সেটাই তিনি তার গানের মাধ্যমে গ্রামের মানুষকে জানাতে চাইছেন।





You May Also Like

error: Content is protected !!