নাবালিকার বিয়ে বন্ধে বচসা, অস্ত্রের কোপ প্রতিবেশীকে




হুগলি, ১৮ জুন : নাবালিকার বিয়ে বন্ধ করাকে কেন্দ্র করে বচসার জেরে দুই প্রতিবেশীর উপর হামলা চালানোর অভিযোগ উঠল তার বাবার বিরুদ্ধে। অভিযোগ, এক প্রতিবেশীর আঙুল কামড়ে দেয় ওই ব্যক্তি। আরেকজনের মাথায় ধারাল অস্ত্রের কোপ মারে। অভিযুক্ত ব্যক্তিকে চুঁচুড়া থানার পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।




এদিকে আক্রান্ত হওয়ার পর প্রতিবেশীরা পালটা অভিযুক্তর বাড়ি ও গাড়ি ভাঙচুর করে। কাল রাতে চুঁচুড়ার রায়বাজার কলোনিতে ঘটনাটি ঘটে। গতকাল রায়বাজার কলোনি এলাকায় এক নাবালিকার বিয়ের আয়োজন হয়েছে বলে খবর পায় চাইল্ড লাইন। সেখান থেকে খবর যায় চুঁচুড়া থানায়। পুলিশ এসে ওই নাবালিকা এবং পাত্রকে থানায় তুলে নিয়ে যায়। এরপর প্রতিবেশীরা এসে ওই নাবালিকার বাড়ির সামনে জড়ো হন। তা দেখে নাবালিকার বাবা রেগে যান। তিনি সন্দেহ করেন, প্রতিবেশীদের মধ্যে কেউ পুলিশকে খবর দিয়ে তার মেয়ের বিয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন।

অভিযোগ, এনিয়ে প্রতিবেশীদের একাংশর সঙ্গে বচসা শুরু হয়ে যায় তার। সেই সময় সত্য দাস নামে এক প্রতিবেশীর আঙুল কামড়ে দেয় নাবালিকার বাবা। কমল দে নামে অপর এক ব্যক্তির মাথায় অস্ত্রের কোপ মেরে মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়। তাঁর মাথায় তিনটি সেলাই হয়েছে। নাবালিকার বাবার এই আচরণে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন প্রতিবেশীরা। তাঁরা অভিযুক্তর বাড়ি এবং রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা গাড়িতে ভাঙচুর চালান।




You May Also Like

error: Content is protected !!