বৌমাকে মোটা টাকার বিনিময়ে দেহ ব‍্যবসায় বিক্রিকরার অভিযোগ শ্বাশুরির বিরুদ্ধে




উত্তর ২৪ পরগনা,০৬ ডিসেম্বর:মাটিয়ায় বৌমাকে মোটা টাকার বিনিময়ে দেহ ব‍্যবসায় বিক্রিকরার অভিযোগ শ্বাশুরির বিরুদ্ধে। ভুয়ো পুলিশ পরিচয় দিয়ে বধুকে বাপের বাড়ির সামনে ফেলে রেখে পালায় দুষ্কৃতীরা। শ্বাশুরিকে চুল কেটে গনধোলাই আমজনতার। ধৃত শ্বাশুরি।




বসিরহাটের মাটিয়া থানার রঘুনাথপুরে পরিচিত যুবকের কাছে টাকার বিনিময়ে বছর কুড়ির প্রিয়া মন্ডলকে গাইঘাটার ধরম পুরের এক পরিচিত যুবকের কাছে বিক্রি করার অভিযোগ শ্বাশুরি সুতপা মন্ডলের বিরুদ্ধে। বধুর বাপেরবাড়ি রঘুনাথপুর এবং শ্বশুর বাড়ি শ্রীরামপুর। স্বামী অঙ্কিত মন্ডল পেশায় ইলেকট্রিশিয়ান। তিনমাস আগে ভালোবাসার সূত্রে বিয়ে হয় দুজনের।

বিয়ের পর থেকে চক্রান্ত শুরু করে শ্বাশুরি সুতপা সরকার। অর্থের বিনিময় বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে গত সাতদিন আগে গাইঘাটার ধরমপুরে আত্মীয়ের বাড়ি নিয়ে যাওয়ার নাম করে মোটা টাকায় বিক্রি করে দিয়ে আসে। সেই সময় স্বামী মাটিয়া থানায় তার স্ত্রীর নিখোঁজ ডায়রী করে। বুধবার রাত ১০টা নাগাদ অন্ধকারে চার দুষ্কৃতী ভুয়ো পুলিশের পরিচয় দিয়ে ঐ মহিলাকে অচৈতন‍্য অবস্থায় বাপের বাড়ির সামনে মারুতি গাড়ি থেকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।

স্থানীয়দের চোখে পড়ায় তাকে সুস্থ করে। পুরো ঘটনা স্বামী অঙ্কিত সহ গ্রামবাসীরা জানায়। অটোয় করে বাড়ির সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় উত্তেজিত গ্রামবাসীরা তাকে নামিয়ে মাথার চুল কেটে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের হাতে তুলেদেয়। একবিংশ শতাব্দীতে নিজের ছেলের বৌকে অর্থের বিনিময়ে বিক্রি করে দেওয়ায় এই ঘটনা আরো একবার প্রমাণ হল মধ‍্যযুগীয় বর্বতা হার মানল।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!