বালুরঘাট শহরের বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের সাহায্যার্থে উদ্যোগী হলেন দক্ষিণ দিনাজপুরের পুলিশ




দক্ষিণ দিনাজপুর ,২৫ মার্চ:করোণা মোকাবেলায় 14 ই এপ্রিল অব্দি চালাক লকডাউন এর ফলে বয়স্কো বৃদ্ধ বৃদ্ধাদের যাতে কোনো রকম অসুবিধা না হয় সেই কথা মাথায় রেখে বালুরঘাট পুলিশের পক্ষ থেকে গৃহীত প্রকল্প প্রণামের আওতায় থাকা নিঃসঙ্গ বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের বাড়িতে সবজি ও অতি প্রয়োজনীয় দ্রব্য পৌঁছে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বালুরঘাট পুলিশের পক্ষ থেকে। করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের বেশিরভাগই বয়স্ক ও শিশু এই কারণে প্রশাসন কোন সময়ই চাইছেন না বেশি বয়সের কোন মানুষ এই সময় বাড়ির বাইরে বেরক, এই কথা মাথায় রেখে বালুরঘাট পুলিশের পক্ষ থেকে গৃহীত প্রকল্প প্রণাম এর অন্তর্গত বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের কাছ থেকে খোঁজ নিয়ে হচ্ছে, এবং তাদের প্রয়োজনীয় সামগ্রী গুলি তাদের বাড়িতে পৌঁছে দিয়ে আসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে বালুরঘাট শহরে প্রায় ৪২৫ জন বৃদ্ধ-বৃদ্ধা আছে যারা এই প্রকল্পের অন্তর্গত জরুরী প্রয়োজনে পুলিশের পক্ষ থেকে তাদেরকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।




এ বিষয়ে জেলা পুলিশ সুপার দেবর্ষি দত্ত জানিয়েছেন ” করোণা সংক্রমণ রুখতে গোটা দেশে জুড়ে লকডাউন চলছে। আমাদের জেলাও সম্পূর্ণভাবে লকডাউন করা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে যারা বয়স্ক মানুষ যারা বাড়িতে একা থাকেন তাদের যাতে কোন সমস্যা না হয়,এবং যাতে তাদের প্রয়োজনীয় সামগ্রী কিনতে ঘরের বাইরে না বেরহতে হয় সেই কারণে প্রণাম প্রকল্পের রেজিস্টার্ড,বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের বাড়ি গিয়ে ভিজিট করা হবে পুলিশের পক্ষ থেকে। এবং আমরা কিছু স্থানীয় সবজি বিক্রেতাদের সঙ্গে নিয়ে তাদের বাড়িতে যাব এবং প্রয়োজনে তারা বাড়ির সামনে থেকে সবজি কিনতে পারবে। শুধুমাত্র সবজি নয় তাদের নিত্য প্রয়োজনীয় সমস্ত সামগ্রী বালুরঘাট পুলিশের পক্ষ থেকে ন্যায্য মূল্যে তাদের বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হবে। দক্ষিণ দিনাজপুর পুলিশের এই উদ্যোগে খুশি বালুরঘাটের প্রবীণ বাসিন্দারা। বালুরঘাট পুলিশের এই মানবিক দিকটিকে কুর্নিশ জানাচ্ছে বালুরঘাটের সাধারণ মানুষ।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!