হরিরামপুরে শরিকি বিবাদ থেকে গোষ্ঠী সংঘর্ষ, হাসপাতালে মৃত্যু হল ১ আহতের

হরিরামপুর, ৯ জানুয়ারিঃমাছ ধরাকে কেন্দ্র করে দুই পরিবারের সংঘর্ষে আহত থাকা ১ জনের মৃত্যু হল সোমবার, মালদা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। মৃতের নাম ফজিলুদ্দিন আহমেদ(৪৫)। ঘটনার অভিযোগ হলেও এখনও অধরা অভিযুক্তরা বলে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত, রবিবার দুপুরে হরিরামপুর থানার গোকর্ণ গ্রামে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ বেঁধেছিল কফিলুদ্দিন এবং ফজিলুদ্দিন এর মধ্যে। কফিলুদ্দিন এবং ফজিলুদ্দিন আহমেদ সম্পর্কে খুড়তুতো ভাই। কফিলুদ্দিন আহমেদের দাদুরা তিন ভাই ছিল। তার দাদু দুই ভায়েই কাছ থেকে পুকুরটি কিনে নেয় বহু দিন আগে। যার রেকর্ড রয়েছে ভূমি ও ভূমি সংস্কার দপ্তরে। সেই পুকুরে তার বাবা এবং পরবর্তীতে তিনি মাছ চাষ করে আসছেন। এদিন তিনি জাল ফেলে কিছু মাছ ধরেন। তার মাছ ধরার কিছু পরেই হঠাৎ তার খুড়তুতো ভাই ফজিলুদ্দিন আহমেদ ও তাদের পরিবারের লোকেরা জাল নিয়ে তার পুকুরে মাছ ধরতে যায়। অভিযোগ, সেই সময় তিনি মাছ ধরতে তাদের বাঁধা দেন। মাছ ধরতে বাঁধা দিতেই তাদের উপর লাঠি সোটা, দা কুড়ুল নিয়ে আক্রমণ চালায় কফিলুদ্দিন ও তার পরিবারের লোকেরা। এই ঘটনায় তার পরিবারের চার জন আহত হয়েছে বলে দাবি করেন।

এলাকায় উত্তেজনা থাকায় গতকাল ওই এলাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়ন ছিল। গতকালই দুই পক্ষই থানায় আলাদা আলাদা ভাবে অভিযোগ দায়ের করেছিল বলে জানা গেছে। অভিযোগ পাওয়ার পরই গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে হরিরামপুর থানার পুলিশ। তবে এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ বলে সূত্রের খবর।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *